| প্রচ্ছদ

ধামইরহাটে আপন বড়ভাইয়ের বিরুদ্ধে দেড়’শ মন আধা পাকা ধান কেটে নেওয়ার অভিযোগ

নওগাঁ প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৫৯ বার। প্রকাশ: ০৫ মে ২০২০ ১৮:১৪:৪১ ।

নওগাঁর ধামইরহাটে জমির আধা পাকা প্রায় দেড়’শ মন ধান কেটে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে আপন সহদর বড় ভাইয়ের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার ভোরে উপজেলার বীরগ্রাম গ্রামের কৃষক এনামুল হকের জমি থেকে এই ধান কেটে নেওয়া হয়েছে। এতে জমির মালিকের প্রায় দেড় লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে ওই কৃষক দাবি করেছেন। এই ঘটনায় মঙ্গলবার বিকেলে এনামুল হক বাদি হয়ে বড় ভাই রেজাউল ইসলামের বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করেছে।
অভিযোগে জানা গেছে, উপজেলার বীর গ্রামের মৃত নায়েব মন্ডলের ছেলে এনামুল হক ও তার আপন বড় ভাই রেজাউল ইসলাম মধ্যে জমি নিযে বিরোধ চলে আসছে। এই জের ধরে মঙ্গলবার ভোরে রেজাউল ইসলাম ও তার লাঠিয়াল বাহিনী দিয়ে ২ একর ৭৪ শতাংশ জমিতে লাগানো আধাপাকা ধান কেটে লুট করে নিয়ে যায়। তাৎক্ষনিক খবর পেয়ে জমিতে গেলে জমি ফাকা দেখতে পান এবং এনামুলকে ধারালো অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করেন।  পরে সেখানে কিছু পড়ে থাকা ধান স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ফজলুর রহমানের নিকট জমা দেন থানা পুলিশ। জমির মালিক এনামুল হক বলেন, আমার ভাই জমিজমা সংক্রান্ত পূর্বশত্রুতার জেরে আমাকে ভিটেমাটি ছাড়া করতে আমার এই ক্ষতি করেছে, তিনি বলেন, ২ একর ৭৪ শতাংশ জমির প্রায় দেড়’শ মন আধাপাকা ধান লুট করে আমার প্রায় ১ লক্ষ ৫৩ হাজার টাকার ক্ষতি করেছে।
ইউপি চেয়ারম্যান ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এনামুলের বড় ভাই রেজাউল ইসলাম শত্রুতা করে লোক লাগিয়ে এনামুলের ক্ষতি করার চেষ্টা দীর্ঘদিন ধরে করে আসছে, পূর্ব শত্রুতার জেরে রেজাউল ইসলামের বিরুদ্ধে এনামুল কোর্টে মামলা করায় বড় ভাই রেজাউল ক্ষিপ্ত হয়ে এই ঘটনা ঘটাতে পারে বলে আমার ধারনা। তবে অভিযুক্ত রেজাউল ইসলাম অভিযোগ কৌশলে এড়িয়ে গিয়ে বলেন, আমার সাথে ভাইয়ের শত্রুতা আছে, সে আমাকে দোষারোপ করতেই পারে। 
ধামইরহাট থানার ওসি শামীম হাসান সরদার বলেন, অভিযোগ পেয়েছি, তদন্ত করে আইনগত 

মন্তব্য