| প্রচ্ছদ

নওগাঁয় কালবৈশাখী ঝড়ে আম ও ধানের ব্যাপক ক্ষতি; নিহত ১

নওগাঁ প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১০৭ বার। প্রকাশ: ০৬ মে ২০২০ ১৯:৫৫:০৪ ।

নওগাঁয় মঙ্গলবার কালবৈশাখী ঝড়ের তান্ডবে উঠতি বোরো ধান ও আমের ব্যাপক ক্ষতি হযেছে। এসময় ঝড়ের তান্ডবে এক নির্মাণ শ্রমিকসহ দুটি গবাদি পশু  মারা গেছে বলে জানা গেছে। 
জানা গেছে মঙ্গলবার বিকেলের দিকে আকষ্মিক কাল বেশাখী ঝড় উত্তর-পশ্চিম দিক থেকে ধেয়ে আসে। ঝড়টি জেলার পোরশা,সাপাহার,পত্নীতলা ও ধামইরহাটসহ বেশ কিছু উপজেলার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়া ঝড়ে এলাকার উঠতি বোরো ফসল ও আমের ব্যাপক ক্ষতি হয় বলে স্থানীয় কৃষকেরা জানিয়েছেন। এরমধ্যে সাপাহার ও ধামইরহাট এলাকায় সবচেয়ে বেশী ক্ষতি হয়েছে বলে জানা গেছে। সাপাহার উপজেলার ইসলামপুর গ্রামের আম বাগান মালিক আতাউর রহমান জানান তাঁদের বাগানেও অসংখ্য আম ঝরে ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে তবে আম্রপলি আমের গাছগুলো আকারে ছোট হওয়ায় গাছের তেমন কোনো ক্ষতি হয়নি। কোনো কোনো এলাকায় বড় বড় আমগাছের অনেক ডালপালা ভেঙে পড়েছে। ওই উপজেলা কৃষি অফিসের সহকারী উদ্ভিদ সংরক্ষন অফিসার আতাউর রহমান সেলিম জানান, এই উপজেলায় প্রায় সাড়ে ৮ হাজার হেক্টর জমিতে আমের বাগান রয়েছে। প্রতি হেক্টরে ১৫ টন আমের উৎপাদন লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে। তবে উপজেলায় গড়ে ৫ শতাংশ আম ঝরে পড়েছে বলে ওই কর্মকর্তা জানান। এদিকে নওগাঁর ধামইরহাটে কালবৈশাখী ঝড়ে ২০৫ হেক্টর জমির ধান ও ২০ হেক্টও ভুট্টা ক্ষেত মাটিতে নুইয়ে গেছে। এদিকে উপজেলার নানাইচ গ্রামের পেপার বিক্রেতা  জাহাঙ্গীর আলমের একটি গাভী ও একটি বাছুর মারা গেছে। উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো. সেলিম রেজা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
এছাড়া একইদিন ঝড়ের তান্ডবে ওই উপজেলার সরকারপাড়া এলাকার রাশিদুল ইসলামের তিন তলা নির্মানাধীন ভবনের ছাদ থেকে কবেজ উদ্দিন(৩০) নামে এক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মৃত কবেজ উদ্দিন উপজেলার জাহানপুর ইউনিয়নের বড় শীবপুর গ্রামের সানেকুল ইসলামের ছেলে ।

 

মন্তব্য