| প্রচ্ছদ

হাসপাতালের চেয়ে বাসায় আইসোলেশনের পরামর্শ চিকিৎসকদের

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬১ বার। প্রকাশ: ০৭ মে ২০২০ ১২:০৭:০০ ।

সুযোগ থাকলে বাসায় বসেই করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসা নেয়ার পরামর্শ চিকিৎসকদের।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে জরুরি না হলে হাসপাতালে যাওয়ার চেয়ে বাসায় আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসা নেবার জন্য পরামর্শ দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। তারা বলছেন, করোনা পজিটিভ রোগীর ৮০ থেকে ৮২ শতাংশ বাড়িতেই চিকিৎসা নিতে পারেন। তাই পর্যাপ্ত সুযোগ থাকলে বাসায় বসেই আইসোলেশনের পরামর্শ চিকিৎসকদের।  

করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে আইসোলেশনে থাকা রোগীদের কাছ থেকে আসছে নানা অভিযোগ।  তবে চিকিৎসকরা বলছেন, যারা হাসপাতালে আছেন, তাদের বেশিরভাগ বাসায় থেকেই নিয়ম মেনে সুস্থ হতে পারেন।   

জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ ডা. লেলিন চৌধুরী বলেন, শতকরা ৮০ থেকে ৮৫ ভাগ রোগীর হাসপাতালে ভর্তির দরকার হয়না।কারণ বেশিরভাগেরই তেমন কোন লক্ষণ থাকে না বা মৃদু লক্ষণ থাকে।কারো যদি বাসায় আলাদা থাকার ব্যবস্থা থাকে, তাহলে তারা বাসায় থেকেই চিকিৎসা নেয়া ভালো।

অক্সিজেন, ইনজেকশনসহ জরুরি দরকার না হলে রোগীকে বাসায় থাকার পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা।  তারা বলছেন, এতে বাড়বে রোগীর মানসিক দৃঢ়তা।  

ডা. লেলিন চৌধুরী বলেন, হাস্পাতালের পরিবেশ রোগীদের উপর যে মানসিক চাপ প্রয়োগ করে,তা যেকোন রোগীর আত্মবিশ্বাস ভেঙ্গে দেয়। এতে মানুষ হতাশ হয়ে যায় এবং রোগীর রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাতে প্রভাব ফেলে।

আইইডিসিআরের সাবেক প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মুস্তাক হোসেন বলেন, যিনি করোনাইয় আক্রান্ত তিনি ২১ দিন এবং তার আসেপাশের মানুষ ১৪ দিন করে কোয়েরেন্টিনে থাকতে হবে।  যতদিন রোগী থাকবে ততদিন কোয়ারেন্টিনের নিয়ম মেনে চলতে হবে। যদি নিয়ম না মানে, তাহলে হাসপাতালে থাকেন আর বাসায় থাকেন তার ঝুঁকি থেকেই যাচ্ছে।

দেশে বর্তমানে ১১ হাজারের বেশি রোগী করোনা আক্রান্ত।  প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে আছেন ১ হাজার ৬৯৪জন।  

মন্তব্য