| প্রচ্ছদ

নওগাঁয় স্বাস্থ্যকর্মীসহ নতুন করে আরো ৭জন করোনায় আক্রান্ত

নওগাঁ প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৯০ বার। প্রকাশ: ০৮ মে ২০২০ ১৬:৫১:৫৫ ।

নওগাঁয় ক্রমেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। গত ২৪ ঘন্টায় জেলার ৬ উপজেলায় নতুন করে আরও ৭ জনের শরীরে করোনা সনাক্ত হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার ৫ম দফায় এই ৭ জন সনাক্ত হযেছে। সানক্তদের মধ্যে সাপাহার উপজেলায় ২জন, নিয়ামতপুর উপজেলায় ২জন এবং রানীনগর, আত্রাই ও বদলগাছি উপজেলায় ১ জন করে। এদের মধ্যে স্বাস্থ্য বিভাগের একজন মেডিক্যাল এ্যাসিষ্ট্যান্ট ও একজন পিপিআই টেকনোলজিষ্ট রয়েছেন। এ  নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ৬০ জন-এ। আবার উপজেলা ওয়ারী আক্রান্তের সংখ্যা হলো রানীনগর-১৬ জন, সাপাহাওে ১২ জন,নিয়ামতপুরে ১০ জন,মহাদেবপুরে ৮,আত্রাইয়ে ৬, বদলগাছী,পত্নীতলা ও মান্দায় ২ জন করে এবং পোরশা ও ধামইরহাটে ১জন করে আক্রান্ত হয়েছে। উপজেলা পর্যায়ে সবচেয়ে বেশী ঝুকিপূর্ন এলাকা এখন রানীনগর।
জেলার ডেপুটি সিভিল সার্জন ডাঃ মঞ্জুর এ মোরশেদ করোনা আক্রান্তের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন এপর্যন্ত রাজশাহী মেডিকাল কলেজ ল্যাব থেকে নমুনা পারীক্ষার প্রাপ্ত ৮৭০ জনের রির্পোটের ফলাফলে ৬০ জন করোনা পজেটিভ এসেছে। এদের অধিকাংশের বেশী নারায়ণগঞ্জ ও ঢাকা থেকে এসেছেন। তিনি বলেন বৃহস্পতিবার পর্যন্ত রাজশাহী ল্যাবে ১ হাজার ৪৭৫ জনের নমুনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। তারমধ্যে ৬০৫ জনের রির্পোট এখনো পাওয়া যায়নি। 
জেলা সিভিল সার্জন কন্ট্রোল রুম থেকে জানা গেছে গত ২৪ ঘন্টায় নওগাঁ জেলা থেকে নতুন করে আরও ২০৩ জনকে হোমে কোয়ানেটাইনে প্রেরন করা হয়েছে। এদের মধ্যে নওগাঁ সদর উপজেলায় ৩৪ জন, রানীনগর উপজেলায় ৪ জন, মহাদেবপুর উপজেলায় ১৯ জন, মান্দা উপজেলায় ১১ জন, বদলগাছি উপজেলায় ২৮ জন, পত্নীতলা উপজেলায় ৪১ জন, ধামইরহাট উপজেলায় ৩৬ জন, সাপাহার উপজেলায় ১৭ জন এবং পোরশা উপজেলায় ৩ জন। 
এই সময়ে হোম কোয়ারেনটাইন থেকে সর্বমোট ছাড়পত্র পেয়েছেন ১০৮ জন। বর্তমানে হোম কোয়ারেনটাইনে রয়েছেন ১ হাজার ৫শ ৭৩ জন। 
উল্লেখ্য শুরু থেকে এ পর্যন্ত ৪৯ জন প্রতিষ্ঠানিক কোয়ারেনটাইনসহ সর্বমোট কোয়ারেনটাইনে পাঠানো হয় ৫ হাজার ৮শ ৬ জনকে। এদের মধ্যে এ পর্যন্ত প্রাতিষ্ঠানিক ১৩ জনসহ সর্বমোট ছাড়পত্র পেয়েছেন ৪ হাজার ২শ ৩৩ জন। বর্তমানে কোয়ারেনটাইনে রয়েছেন ১ হাজার ৫শ ৩৭জন ও প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে ৩৬ জন।

 

মন্তব্য