| প্রচ্ছদ

সেই পুরানো চেহারা ঢাকার: বেড়েছে চলাচল, গাড়ির জট

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৩০ বার। প্রকাশ: ১১ মে ২০২০ ০১:০৯:১১ ।

রাজধানীতে রোববার মানুষের চলাচল বেড়েছে। গুরুত্বপূর্ণ সড়কে দেখা গেছে গাড়ির জট। সরকারের নির্দেশনায় রোববার থেকে খুলতে শুরু করে বিভিন্ন শপিং মল ও দোকান। 

তবে রাজধানীতে জনপ্রিয় শপিং মলগুলো খোলেনি। বড় শপিং মলের বাইরে ছোট ছোট মার্কেট ও বিভিন্ন ফ্যাশন ব্র্যান্ডের দোকান খুলেছে। খবর দেশ রুপান্তর 

সরকার ঘোষিত সাধারণ ছুটি এবং শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকলেও রাস্তায় মানুষের চলাচল বেড়েছে। ব্যক্তিগত যানবাহন, মোটরসাইকেল, রিকশা ইত্যাদির চলাচল অন্যান্য দিনের চেয়ে অনেক বেশি দেখা গেছে।

সকাল থেকে মিরপুর ১০ নম্বর, ২ নম্বর, ১ নম্বর, শেওড়াপাড়া, মহাখালী, বনানী, গুলশান, তেজগাঁও, ফার্মগেট, কারওয়ান বাজার, পান্থপথ, নিউমার্কেট, মিরপুর রোড, ধানমন্ডি ইত্যাদি এলাকা ঘুরে এ চিত্র দেখা গেছে।

বেশিরভাগ দোকানের কর্মচারীদের মাস্ক ও গ্লাভস পরতে দেখা যায়। শপিং মল ও ব্র্যান্ডের দোকানে ঢোকার সময় হাত ধোয়া অথবা জীবাণুনাশক ব্যবহার, জ্বর মাপা ও জীবাণুনাশক ছিটাতে দেখা যায়। ছোট দোকানে অনেক ক্ষেত্রেই এসব ব্যবস্থা ছিল না। 

এর আগে বৃহস্পতিবার পুলিশ নিজ বাসস্থানের দুই কিলোমিটার এলাকায় কেনাকা করার নির্দেশনা দেয়। সঙ্গে পরিচয়পত্র বহন করতেও বলা হয়। তবে রোববার বিভিন্ন জায়গায় পুলিশকে পরিচয়পত্র দেখতে দেখা যায়নি।

কাকরাইল, শান্তিনগর, মৌচাক, রামপুরা, মালিবাগ, খিলগাঁও, আরামবাগ সড়কে যানবাহনের ভিড় আর মানুষের ঢল দেখা গেছে। দুপুরে শাপলা চত্বর থেকে হাটখোলা পর্যন্ত সড়কে যানবাহনের ভিড়ের মধ্যে অ্যাম্বুলেন্স এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গাড়িও আটকে থাকতে দেখা গেছে। যাত্রাবাড়ী এলাকায় দেখা গেল লেগুনায় গাদাগাদি করে মানুষ উঠেছে। 

বিভিন্ন এলাকায় ফুটপাতে পসরা নিয়ে বসতেও দেখা গেছে হকারদের। 

২৬ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটি ঘোষণার পর বন্ধ থাকে দোকান, শপিংমল, সীমিত করা হয় ব্যাংকিং কাররক্রম। গণপরিবহন বন্ধ করাসহ চলাচলে আরোপ করা হয় বিধিনিষেধ। এর ফলে শনিবার পর্যন্ত রাস্তা অনেকটাই ফাঁকা ছিল।

মন্তব্য