| প্রচ্ছদ

নিলামে হ-য-ব-র-ল, পিছু হটলেন আশরাফুল

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫৯ বার। প্রকাশ: ১৩ মে ২০২০ ২৩:৩৮:০২ ।

করোনাকালে অসহায়দের জন্য অর্থ সংগ্রহে ২০০৫ সালে কার্ডিফে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে করা সেঞ্চুরির ব্যাট নিলামে তুলতে চেয়েছিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল। তবে এই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন তিনি। নিলাম প্রক্রিয়ায় হ-য-ব-র-ল চিত্র দেখে পিছু হটেছেন দেশের ক্রিকেটের সাবেক এই অধিনায়ক।

ক্রিকেটারদের মধ্যে সাকিব আল হাসানের ২০১৯ বিশ্বকাপে ব্যবহৃত ব্যাট এরই মধ্যে নিলামে বিক্রি হয়েছে ২০ লাখ টাকায়। ‘অকশন ফর অ্যাকশন’ পেজ থেকে নিলাম হয় ব্যাটটির। একই প্ল্যাটফর্ম থেকে নিলাম হওয়ার কথা ছিল আশরাফুলের ব্যাটের। ১১ মে দিনক্ষণও ঠিক হয়েছিল। কিন্তু সেই দিনক্ষণ কর্তৃপক্ষ ঠিক রাখতে পারেননি।

এদিকে মুশফিকুর রহিম দেশের হয়ে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির কীর্তিগাথা ব্যাট নিলামে তুলেছেন অনলাইন প্ল্যাটফর্ম পিকাবোয়। যেখানে অনেক ভুয়া কলের ঘটনা ঘটেছে। এই দুই অভিজ্ঞতা থেকেই আশরাফুল ব্যাট নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন।

সংবাদ মাধ্যমকে বলেছেন, ‘মুশফিকুরের ব্যাটের নিলাম নিয়ে রীতিমতো তামাশা হচ্ছে। আমার রেকর্ডের ব্যাট নিলামে উঠিয়ে তামাশা হোক তা চাই না। বুঝতে হবে, আমার ব্যাটে রেকর্ড হয়েছে।’

‘‘আমি অকশন ফর অ্যাকশন’র নাফিজ ভাইয়ের সাথে কথা বলেছি। প্রথম উনি আমার ব্যাটের নিলামের জন্য একবার তারিখ নির্ধারন করেছেন ১১মে। পরে বলেছেন হোল্ড।’ তখন ৮ লাখ টাকা ভিত্তিমূল্য নির্ধারন হয়েছিল আশরাফুলের ব্যাটের।

নিলাম প্রক্রিয়াটাও স্বচ্ছ নয় আশরাফুলের কাছে। বলছিলেন, ‘জস বাটলার তার বিশ্বকাপ জার্সি যেভাবে নিলামে বিক্রি করেছে, সেরকম স্বচ্ছ প্রক্রিয়া দেখছি না। আমার মূল্যবান ব্যাটটি কীভাবে নিলামে তুলবে, কীভাবে বিক্রি হবে, কীভাবে টাকাটা আসবে, তারা কমিশন মানি কত পাবে, না কমিশন মানি নিবে না, তার কিছুই বলছে না। তাই ওদেরকে না করে দিয়েছি।’

মন্তব্য