| প্রচ্ছদ

স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছিল না

বগুড়ায় ‘হঠাৎ মার্কেট’ বন্ধ 

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ৫২২ বার। প্রকাশ: ১৯ মে ২০২০ ১৪:৪৫:২৪ ।

বগুড়ায় ‘হঠাৎ মার্কেট’ নামে রেল লাইনের ওপর গড়ে ওঠা অস্থায়ী মার্কেটটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জি এম রাশেদুল ইসলাম জানান, কেনা-কাটার সময় ক্রেতা-বিক্রেতারা স্বাস্থ্যবিধি না মানায় রেলওয়ে স্টেশনের পূর্ব দিকের ওই মার্কেটটি মঙ্গলবার দুপুর ২টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।
বগুড়া রেলওয়ে স্টেশনের পূর্ব দিকে রেল লাইনের ওপর প্রায় দুই যুগ আগে একদিন হঠাৎ করেই অর্ধশত ক্ষুদে ব্যবসায়ী পুরাতন কাপড়ের দোকান খুলে বসেন। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত চলা ওই মার্কেটে ট্রেন চলাচলের সময়টুকু দোকানগুলো সরিয়ে নেওয়া হয়। স্বল্প মূল্যে কেনা-কাটা করা যায় বলে দিন দিন অবৈধভাবে গড়ে ওই মার্কেটের বিস্তৃতি বাড়তে থাকে। এমনকি ট্রেন চলাচলের সময়ে একাধিক হতাহতের ঘটনাও সেখানে ঘটেছে। রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ একাধিকবার অভিযান চালিয়েও মার্কেটটি বন্ধ করতে পারেননি।
করোনা পরিস্থিতির কারণে ট্রেন চলাচল বন্ধ থাকায় এবার হঠাৎ মার্কেটে দোকানের সংখ্যা আরও বেড়ে যায়। ঈদের মৌসুম ঘনিয়ে আসায় সেখানে কেনা-কাটা করতে আসা লোকজনের ভিড়ও বাড়তে শুরু করে। ক্রেতা-বিক্রেতা কেউই স্বাস্থ্য বিধি মানছেন না বলে অনেকেই ‘হঠাৎ মার্কেট’ বন্ধের জন্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে লেখালেখি শুরু করেন।
বগুড়া জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিএম রাশেদুল ইসলাম জানান, তিনি সকাল ১০ টা থেকে হকার্স মার্কেট, পাশের কড়িতলা মার্কেট ও রেললাইনের ওপর গড়ে ওঠা হঠাৎ মার্কেট পর্যবেক্ষণ করা শুরু করেন। তিনি বলেন, হকার্স মার্কেট ও কড়িতলা মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির নেতৃবৃন্দ তাদের মার্কেটে ভিড় কমানোর পাশাপাশি স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার জন্য নানা ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছেন। কিন্তু উন্মুক্ত ‘হঠাৎ মার্কেটে’ এ ধরনের কোন ব্যবস্থাই চোখে পড়েনি। এমনকি ওই মার্কেটের দোকান মালিকদের কোন সংগঠন বা তাদের নেতৃবৃন্দকেও পাওয়া যায়নি। তাই জনস্বার্থে মঙ্গলবার দুপুর ২টা থেকে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত ওই মার্কেটি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।’

মন্তব্য