| প্রচ্ছদ

চলে গেলেন মৃণাল সেন

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭০ বার

কিংবদন্তি চলচ্চিত্র পরিচালক মৃণাল সেন আর নেই। রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে ভবানীপুরে নিজ বাড়িতে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে পরলোকগমন করেন তিনি। দীর্ঘদিন ধরেই বার্ধক্যজনিত অসুখে ভুগছিলেন মৃণাল সেন। 

১৯২৩ সালের ১৪ মে তৎকালীন ভারতবর্ষের ফরিদপুরে জন্মগ্রহণ করেন গুণী এই পরিচালক। হাইস্কুল পাশ করে পরিবারের সঙ্গে কলকাতায় চলে আসেন। পদার্থবিদ্যা বিষয়ে স্কটিশ চার্চ কলেজে পড়াশোনা শেষে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর ডিগ্রি লাভ করেন। আজীবন বামপন্থায় বিশ্বাসী মৃণাল কমিউনিস্ট পার্টি অব ইন্ডিয়ার সাংস্কৃতিক কাজকর্মের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। কিন্তু কখনও পার্টির সদস্য হননি তিনি।

১৯৫৫ সালে ‘রাত ভোর’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে পরিচালনায় নামেন মৃণাল। তার পরের ছবি ‘নীল আকাশের নীচে’। ‘বাইশে শ্রাবণ’ ছবির মাধ্যমে আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করেন সত্যজিৎ রায় ও ঋত্বিক ঘটকের সমসাময়িক এই পরিচালক। ১৯৬৯ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত তার ‘ভুবন সোম’ ছবিটি জাতীয় এবং আন্তর্জাতিকভাবে প্রশংসিত হয়। 

পদ্মভূষণ সম্মানে ভূষিত হয়েছিলেন মৃণাল সেন। ২০১৭ সালে প্রয়াত হন তার স্ত্রী গীতা। তিনি একমাত্র ছেলে কুণালকে রেখে গেছেন।

মন্তব্য