| প্রচ্ছদ

২৭ সেপ্টেম্বর: এই দিনে ভূমিকম্পে এক লাখ লোক মারা যান চীনে

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে বার। প্রকাশ: ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ ১০:২৪:০৮ ।

আজ ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০, রোববার, ১২ আশ্বিন ১৪২৭ বঙ্গাব্দ, ৯ সফর ১৪৪২। গ্রেগরীয় বর্ষপঞ্জী অনুসারে বছরের ২৭০তম (অধিবর্ষে ২৭১তম) দিন। বছর শেষ হতে আরও ৯৬ দিন বাকি রয়েছে।

আজকের দিনটি সময়ের হিসেবে অতি অল্প সময়। আবার একটি ঘটনার জন্য যথেষ্ট সময়। ইতিহাস ঘেঁটে দেখা যায় বছরের প্রতিটি দিনেই ঘটেছে নানা উল্লেখযোগ্য ঘটনা। এই দিনে প্রবল ভূমিকম্পে চীনে এক লাখ লোক মৃত্যুবরণ করে। চলুন এক নজরে দেখে নেওয়া যাক আজকের দিনের আরও উল্লেখযোগ্য ঘটনা-

ঘটনাবলী:

১২৯০: প্রবল ভূমিকম্পে চীনে এক লাখ লোক মৃত্যুবরণ করে।

১৭৬০: মীর কাশিম মীর জাফরকে গদিচ্যুত করে বাংলার নবাব হন এবং বর্ধমান, মেদিনীপুর ও চট্টগ্রাম জেলা কোম্পানির হাতে তুলে দেন।

১৭৮১: হায়দার আলী ও ব্রিটিশ সেনাদের মধ্যে শলনগড় যুদ্ধ শুরু হয়।

১৮২১: মেক্সিকো স্পেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে।

১৮২২: জ্যা ফ্রাঁস শাপোলি ঘোষণা দেন যে তিনি রাশিদা পাথরের (প্রাচীন মিশরীয় লিপি খোদিত পাথর) পাঠোদ্ধার করেছেন।

১৮৩৪: চার্লস ডারউইন ভালপারাইসোতে ফিরে আসেন।

১৯২৮: আমেরিকার যুক্তরাষ্ট্র চীন প্রজাতন্ত্রকে স্বীকৃতি দেয়।

১৯৩৭: প্রথম সান্তাক্লজ প্রশিক্ষণের স্কুল চালু হয়।

১৯৪০: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে জার্মানির বের্লিনে জার্মানী, জাপান ও ইতালী ত্রিপক্ষীয় চুক্তিতে সাক্ষর করে।

১৯৪০: ইংল্যান্ডে ৫৫ জার্মান বিমান ভূপাতিত হয়।

১৯৪২: স্ট্যালিনগ্রাদে ব্যাপক গুলিবর্ষণ করে জার্মানি।

১৯৪৯: বেইজিংকে আনুষ্ঠানিকভাবে চীনের রাজধানী হিসাবে ঘোষণা করা হয়।

১৯৫৮: ভারতীয় সাঁতারু মিহির সেন ইংলিশ চ্যানেল অতিক্রম করেন।

১৯৬১: সিয়েরা লিওন জাতিসংঘে যোগ দেয়।

১৯৬২: ইয়েমেন আরব প্রজাতন্ত্র (উত্তর ইয়েমেন বা ইয়েমেন-সা’না) প্রতিষ্ঠিত হয়। দেশটি ১৯৯০ সাল পর্যন্ত টিকে ছিল।

১৯৮০: বিশ্ব পর্যটন দিবস পালিত হয়ে আসছে।

১৯৮৩: মুক্ত সফ্টওয়ার আন্দোলনকারী রিচার্ড স্টলম্যান ইউনিক্স-লাইক অপারেটিং সিস্টেম তৈরীর জন্য জিএনইউ প্রজেক্ট ঘোষণা দেন।

১৯৯৬: তালেবান যোদ্ধারা আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুল দখল করে নেয়।

২০০২: পূর্ব তিমুর জাতিসংঘে যোগ দেয়।
 
জন্ম:

১৬০১: অষ্টম লুই, তিনি ছিলেন ফ্রান্সের রাজা।

১৭২২: স্যামুয়েল অ্যাডামস, তিনি ছিলেন আমেরিকান দার্শনিক ও রাজনীতিবিদ।

১৭৮৩: অগাস্টিন ডি ইটুরবিডে, তিনি ছিলেন মেক্সিক্যান রাজপক্ষীয় বিদ্রোহী।

১৮৪৩: গ্যাস্টন টেরি, তিনি ছিলেন ফরাসি গণিতবিদ।

১৮৭১: গ্রাযিয়া ডেলেডা, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইতালীয় লেখক।

১৯০৬: সতীনাথ ভাদুড়ি, তিনি ছিলেন একজন প্রথিতযশা সাহিত্যিক।

১৯০৭: ভগৎ সিং, তিনি ছিলেন ব্রিটিশ বিরোধী সংগ্রামের প্রসিদ্ধ ভারতীয় বিপ্লবী শহীদ।

১৯১৮: মার্টিন রাইল, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ জ্যোতির্বিজ্ঞানী।

১৯২৪: ফ্রেড সিংগার, তিনি ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বিশিষ্ট পরিবেশবিদ, মহাকাশ গবেষক ও পদার্থবিদ।

১৯২৫: রবার্ট এডওয়ার্ডস, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ইংরেজ শারীরবিজ্ঞানী।

১৯৩২: অলিভার উইলিয়ামসন, তিনি নোবেল পুরস্কার বিজয়ী মার্কিন অর্থনীতিবিদ।

১৯৩২: যশ চোপড়া, তিনি ভারতীয় চলচ্চিত্রকার।

১৯৪৬: নিকস আনাস্টাসিয়াডেস, তিনি সাইপ্রাসের আইনজীবী, রাজনীতিবিদ ও ৭ম প্রেসিডেন্ট।

১৯৫৭: চার্লস উইলিয়াম জেফ্রি অ্যাথে, তিনি ইংরেজ সাবেক ক্রিকেটার ও ফুটবলার।

১৯৬২: গেভিন রল্ফ লারসেন, তিনি নিউজিল্যান্ড ক্রিকেটার।

১৯৬৮: মারি কিভিনিয়েমি, তিনি ফিনল্যান্ডের রাজনীতিবিদ ও ৪১তম প্রধানমন্ত্রী।

১৯৭২: গ্বয়নেথ পাল্টরও, তিনি আমেরিকান অভিনেত্রী, ব্লগার ও ব্যবসায়ী।

১৯৭৬: ফান্সিস্কো টট্টি, তিনি ইতালীয় ফুটবলার।

১৯৮১: ব্রেন্ডন ম্যাককুলাম, তিনি নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটার।

১৯৮৪: এভ্রিল রমোনা লাভিন, তিনি কানাডিয়ান গায়িকা, গীতিকার, অভিনেত্রী ও ফ্যাশন ডিজাইনার।

১৯৯১: সিমোনা হালেপ, তিনি রোমানিয়ান টেনিস খেলোয়াড়।

মৃত্যু:

১৫৫৭: গো-নারা, তিনি ছিলেনজাপানের সম্রাট।

১৭৮৩: এটিয়েনে বেযোউট, তিনি ছিলেন ফরাসি গণিতবিদ ও তাত্ত্বিক।

১৮৩৩: রাজা রামমোহন রায়, তিনি ছিলেন প্রথম ভারতীয় ধর্মীয়-সামাজিক পুনর্গঠন আন্দোলন ব্রাহ্মসমাজের প্রতিষ্ঠাতা ও বাঙালি দার্শনিক।

১৮৯১: ইভান গোঞ্চারোভ, তিনি ছিলেন রাশিয়ান লেখক ও সমালোচক।

১৯৩৩: কামিনী রায়, তিনি ছিলেন বাঙালি কবি।

১৯৪০: জুলিয়াস ওয়াগনার-জারেগ, তিনি ছিলেন নোবেল পুরস্কার বিজয়ী অস্ট্রিয়ান চিকিৎসক।

১৯৭১: নাজমুল হক, তিনি ছিলেন বীর উত্তম খেতাব প্রাপ্ত বাংলাদেশী মুক্তিযোদ্ধা ও সেক্টর কমান্ডার।

১৯৭২: শৃগালি রামাব্রদম রঙ্গনাথন, তিনি ছিলেন ভারতীয় গণিতজ্ঞ, গ্রন্থাগারিক ও শিক্ষাবিদ।

১৯৯৬: মোহাম্মদ নাজিবুল্‌লাহ, তিনি ছিলেন আফগান চিকিৎসক, রাজনীতিবিদ ও ৭ম প্রেসিডেন্ট।

২০০৫: রোনাল্ড গোলিয়াস, তিনি ছিলেন ব্রাজিলের কৌতুকাভিনেতা ও অভিনেতা।

২০০৭: কেঞ্জি নাগাই, তিনি ছিলেন জাপানি আলোকচিত্রী ও সাংবাদিক।

২০১৩: অস্কার কাস্ত্রো-নেভেস, তিনি ছিলেন ব্রাজিলিয়ান বংশোদ্ভূত আমেরিকান গিটার, সুরকার ও পথপ্রদর্শক।

২০১৫: ফ্রাঙ্ক টাইসন, তিনি ছিলেন ইংরেজ ও অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার, কোচ ও সাংবাদিক।

২০১৬: সৈয়দ শামসুল হক, তিনি ছিলেন সবচেয়ে কম বয়সে বাংলা একাডেমি পুরস্কারপ্রাপ্ত সব্যসাচী লেখক।

মন্তব্য