| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় বিধবা ভিক্ষুককে শ্বাসরোধে হত্যাকান্ডে গ্রেপ্তার ২

আমিনুল ইসলাম শ্রাবণ
পঠিত হয়েছে বার। প্রকাশ: ১৭ অক্টোবর ২০২০ ১৮:৩০:১০ ।

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় হাসিলা বেগম (৪১) নামে এক বিধবা ভিখারীনিকে শ্বাসরোধে হত্যা মামলার দুই আসামীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার দুপুরের পর ধুনট থানা থেকে আদালতের মাধ্যমে তাদের বগুড়া জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে। নিহত হাসিলা বেগম উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের ঘুগরাপাড়া গ্রামের শুকর আলী মন্ডলের মেয়ে।

গ্রেপ্তারকৃত আসামীরা হলেন, একই এলাকার আনারপুর কচুগাড়ি গ্রামের সামছুল মন্ডলের ছেলে বাদশা আলম (২৮), আনারপুর হঠাৎপাড়া গ্রামের বাদু মন্ডলের ছেলে ফজলুল হক (৩২)। গ্রেপ্তারকৃতরা পেশায় সিএনজি চালিত অটোরিকশা চালক। শুক্রবার রাতে পুলিশ অভিযান চালিয়ে তাদের নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, হাসিলা বেগমের স্বামী আজাহার আলী প্রায় ২৪বছর আগে মারা যান। এরপর হাসিলা বেগম তার বাবার বাড়িতে থাকেন। এক সন্তানের জননী হালিসা বেগম ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করে। তারই ধারাবাহিকতায় হাসিলা বেগম ১২অক্টোবর ভিক্ষা করে সন্ধ্যায় বাড়ি ফিরে পাশের বাড়িতে বেড়াতে যান। এরপর হাসিলা রাতে আর বাড়ি ফিরেনি। পরের দিন ১৩ অক্টোবর সকালের দিকে বাড়ির অদুরে ফাঁকা মাঠের ভেতর হাসিলার মৃতদেহ পাওয়া যায়। পুলিশ ও স্থানীয়দের ধারনা দূর্বৃত্তরা তাকে গলায় ওড়না পেঁচিয়ে শ্বাসরোধে হত্যা করেছে। এ ঘটনায় নিহত হাসিলা বেগমের বড় বোন ধুলি বেগম বাদি ধুনট থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। তবে ওই মামলায় কোন আসামীর নাম উল্লেখ নেই।

ধুনট থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) কামরুজ্জামান মিঞা বলেন, নিহত হাসিলা বেগমের মোবাইল ফোনের কললিষ্টের সূত্র ধরে বাদশা আলম ও ফজলুল হককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। এ হত্যাকান্ডের সাথে আরো কেউ জড়িত আছে কিনা তা জানতে সাতদিনের রিমান্ড চেয়ে আদালতের মাধ্যমে আসামীদের কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মন্তব্য