| প্রচ্ছদ

ওয়ার্নার বিপিএলে আসায় বেজায় খুশি মুস্তাফিজ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৯৮ বার

একসঙ্গে দুই মৌসুম আইপিএল খেলেছেন ওয়ার্নার-মুস্তাফিজ। দু'জন দারুণ পারফর্মে হায়দরাবাদকে এনে দিয়েছেন শিরোপা। দু'জনের বয়সের ফারাক অবশ্য ঢের। কিন্তু ভালো বন্ধু এবং সতীর্থ তারা। গেল মৌসুমে মুস্তাফিজ আবার খেলেছেন মুম্বাইয়ে। কিন্তু বল টেম্পারিং কান্ডে আইপিএল খেলা হয়নি ওয়ার্নারের। দুই সাবেক সতীর্থের তাই দেখা দীর্ঘদিন বাদে। কিন্তু সম্পর্কে তো মরিচা ধরেনি। কুটিলতা বর্জিত ওই হাঁসিই তা বলে দেয়।

দুই সতীর্থের দেখা করিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) ষষ্ঠ আসর। এখানে অবশ্য মুস্তাফিজ-ওয়ার্নার সতীর্থ নন। বিপিএলে তারা দু'জন খেলবেন দু'দলে। রাজশাহী কিংসের আইকন খেলোয়াড় মুস্তাফিজ। ভালো পারফর্ম করে দলকে ভালো অবস্থানে নেওয়ার চাপ তাই মুস্তাফিজের ওপর। আর ডেভিড ওয়ার্নার সিলেট সিক্সার্সের অধিনায়ক। প্রথম বিপিএল শিরোপা দিয়ে এই মুহূর্ত স্মরণীয় করতে চান তিনি।

 

 

বিপিএলে দেখো মিলল সাবেক দুই আইপিএল সতীর্থ মুস্তাফিজ-ওয়ার্নারের।

সেসব তো পরের কথা। ময়দানী লড়াইয়ে নামলে তখন না হয় শত্রু। তাও আবার দু'জনের মুখোমুখি লড়াইয়ের দিনে। তার আগে দীর্ঘদিন পরে সতীর্থকে পেয়ে ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়ে গেলেন দু'জন। ওয়ার্নার বন্ধুকে পেয়ে দিলেন বাধ ভাঙা হাঁসি। আর কাটার মাস্টার ফিজের চোখে-মুখে নির্মল হাঁসি।

বন্ধু এবং আইপিএল সতীর্থ ওয়ার্নারের সঙ্গে তার এই ফ্রেমবন্দী হওয়ার ছবি নিজের ফেসবুক পেজে দিয়েছেন মুস্তাফিজ। প্রকাশ করেছেন নিজের উচ্ছ্বাস, 'বাংলাদেশে (বিপিএলে) আপনাকে দেখে খুব খুশি হয়েছি। এই খুশির মাত্রা ভাষায় প্রকাশ করার নয়। এ বছরের বিপিএলে আপনার অংশগ্রহণে ভীষণ উচ্ছ্বসিত।' 

মন্তব্য