| প্রচ্ছদ

জিলা স্কুলের নাম আরও একবার তুলে ধরলো ক্ষুদে শিক্ষার্থী

বগুড়ায় পিইসিতে ৬০০ নম্বর পাওয়ার রেকর্ড গড়েছে আলফি

দোস্ত আউয়াল
পঠিত হয়েছে ৯১২ বার। প্রকাশ: ০৮ জানুয়ারী ২০১৯ । আপডেট: ০৮ জানুয়ারী ২০১৯ ।

বগুড়া জিলা স্কুলের নাম আর একবার দেশবাসীর কাছে তুলে ধরলো ক্ষুদে শিক্ষার্থী আলফি হাসান। গেল বছর নভেম্বরে অনুষ্ঠিত প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষায় সে সর্বোচ্চ ৬০০ নম্বর পাওয়ার রেকর্ড গড়েছে। 
পিইসিতে বাংলা, ইংরেজি, গণিত, প্রাথমিক বিজ্ঞান, বাংলাদেশ ও বিশ্ব পরিচয় এবং ধর্ম ও নৈতিক শিক্ষা-এই ছয়টি বিষয়ের প্রতিটিতে ১০০ নম্বরের পরীক্ষা গ্রহণ করা হয়। গত ২৪ ডিসেম্বর প্রকাশিত ফলাফলে দেখা গেছে আলফি হাসান সবগুলোতেই ১০০ নম্বর করে পেয়েছে। তার অভাবনীয় ফলাফলের কথা বগুড়া জিলা স্কুলের সহকারি প্রধান শিক্ষক হোসনে আরা বেগম নিশ্চিত করেছেন।
আলফি হাসানের বাবা বগুড়ার মহাস্থানগড় এলাকার অবসরপ্রাপ্ত স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ইমদাদুল হক। তার মা রেহেনা খাতুন স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা বিভাগে কর্মরত। আলফি হাসান বাবা-মার সঙ্গে বর্তমানে বগুড়া শহরের ছিলিমপুরে বসবাস করছে।
বগুড়া জিলা স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ‘শ্রেণি শিক্ষক’ খন্দকার আসহাদুল ইসলাম জানান, আলফি হাসান শুধু পড়ালেখাতেই নয় অভিনয় এবং গানেও সমান পারদর্শী। সে স্পষ্ট উচ্চারণ আর সুরেলা কণ্ঠে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করতে পারে। আলফি পুণ্ড্রকথাকে বলেছে ‘আল্লাহ্‌র রহমতে আমি অনেক ভাল ফল করেছি। আমি ভাল মানুষ হিসেবে বড় হয়ে দেশের সেবা করতে চাই ।’ ভবিষ্যতে কি হতে চাও তুমি এমন প্রশ্নের জবাবে আলফি হাসান বলেন, ‘আমি দেশসেরা একজন প্রকৌশলী হতে চাই।’
মা রেহেনা খাতুন আলফির জন্য সবার কাছে দোওয়া চেয়েছেন। পুণ্ড্রকথাকে তিনি বলেন, ‘আমি আমার ছেলেকে অনেক ভাল একজন মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। এজন্য সবার দোয়া ও সহযোগিতা প্রয়োজন।’
বগুড়া জিলা স্কুরের সহকারি প্রধান শিক্ষক হোসনে আরা বেগম আলফি হাসানের সফলতা কামনা করে বলেন, ‘আমাদের স্কুলের শিক্ষার্থীরা অনেক মেধাবী। তাদের বহুমুখী প্রতিভা রয়েছে। আলফি একদিন বিশ্ব জয় করবে-এমনটাই প্রত্যাশা আমাদের।’  

মন্তব্য