| প্রচ্ছদ

ভোলায় ঘুমন্ত গৃহবধূকে পুড়িয়ে হত্যা, দগ্ধ ২

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬১ বার। প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ । আপডেট: ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ ।

ভোলার লালমোহন উপজেলায় ঘুমন্ত গৃহবধূ সুরমাকে (২৫) পুড়িয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। এসময় দগ্ধ হয়েছেন দুজন।

শুক্রবার রাতে লালমোহন চরভূতা ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডের খারাকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, স্বামীর সঙ্গে বিরোধের জেরে সুরমা ১০ দিন আগে তার বড় বোন আংকুরা বেগমের বাড়িতে ওঠেন।

শুক্রবার রাতে খাবারের পর ঘুমিয়ে পড়েন সুরমা। এসময় মাটির ঘরের পেছন দিয়ে সিঁদ কেটে প্রবেশ করে দুর্বৃত্তরা।

তারা লেপ-তোষকে আগুন ধরিয়ে দেয়। আগুনে ঘটনাস্থলেই সুরমার মৃত্যু হয়। এতে বোন আংকুরা ও তার খাদিজা (৮) আহত হয়। তাদের বরিশাল শেরেবাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

উদ্ধারকারী একই বাড়ির যুবক রাকিব জানান, রাত সাড়ে ১২টা থেকে ১টার মধ্যে ঘটনাটি ঘটে। তাদের চিৎকার শুনে ঘরে প্রবেশ করে আহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠানো হয়। তবে কে এই ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানা যায়নি।

নিহত সুরমার মেঝ বোন শাহিনুর ও ভাই মহিউদ্দিন জানান, সুরমার বাবার বাড়ি লালমোহন ইউনিয়নের ২নং ওয়ার্ডে। সুরমার ৬ মাস আগে বোরহানউদ্দিনের দেউলা এলাকার রফিকের সঙ্গে বিয়ে হয়। বিয়ের পর স্বামী রফিকের সঙ্গে বনিবনা হচ্ছিল না। তাদের প্রায় ঝগড়া বিবাদ লেগেই থাকতো। এ নিয়ে বিচার সালিশও হয়।

গত ১০দিন আগে সুরমাকে রেখে তার স্বামী চলে যায়। সুরমা বড় বোনের বাড়িতে ওঠেন। সেখানে এ ঘটনা ঘটে।

লালমোহন থানার ওসি মীর খায়রুল কবীর বলেন, সুরমার স্বামীর সঙ্গে বিরোধ চলছিল। স্বামী তাকে বিভিন্ন সময় প্রাণনাশের হুমকিও দেয়।

তবে ধারণা করা হচ্ছে, এটা তার স্বামী ঘটাতে পারে। এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে বলে জানান ওসি।

মন্তব্য