| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় টিএমএসএসে পেঁয়াজের বীজ উৎপাদন কলাকৌশল বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

পুণ্ড্রকথা রিপোর্ট
পঠিত হয়েছে ১১৬ বার। প্রকাশ: ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ । আপডেট: ১৯ জানুয়ারী ২০১৯ ।

বগুড়ার টিএমএসএস প্রশিক্ষণ কক্ষ ঠেঙ্গামারায় পেঁয়াজের বীজ উৎপাদন কলাকৌশল বিষয়ক কৃষক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বীজ প্রযুক্তি বিভাগ গাজীপুর, মসলা গবেষণা কেন্দ্র শিবগঞ্জ বগুড়ার বাস্তবায়নে ও টিএমএসএস এর সহযোগিতায় কৃষকদের মাঝে ওই প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

 

পেঁয়াজের প্রজনন বীজ উৎপাদন শীর্ষক কর্মসূচীর আওতায় ও পেঁয়াজের বীজ উৎপাদনের কলাকৌশলের উপর অনুষ্ঠিত উক্ত কৃষক প্রশিক্ষণে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পুন্ড্র ইউনিভার্সিটি অব সায়েন্স এ্যান্ড টেকনোলজি গোকুল বগুড়ার ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. এ.কে.এম আজাদ-উদ-দৌলা প্রধান।  তিনি বলেন, দেশে প্রচুর পেঁয়াজের চাহিদা রয়েছে। বিদেশ থেকে পেঁয়াজে আমদানী করতে হয়। বৈজ্ঞানিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ করে পেঁয়াজের উৎপাদন বাড়াতে হবে, যাতে বিদেশ থেকে পেঁয়াজ আমদানী করতে না হয়। উৎপাদন বাড়াতে হলে প্রশিক্ষণের বিকল্প নাই। আমাদের মাটি উর্বর। সঠিক পদ্ধতিতে মসলার চাষাবাদ করলে দেশ মসলা উৎপাদনে স্বনির্ভর হবে। 

 

মসলা গবেষণা কেন্দ্র শিবগঞ্জ বগুড়ার মূখ্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ও কর্মসূচী পরিচালক শফিকুল ইসলামের সভাপিতত্বে অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন টিএমএসএস এর উপ-নির্বাহী পরিচালক-২ ডাঃ মতিউর রহমান, পরিচালনা পর্ষদের কোষাধ্যক্ষ আয়শা বেগম, পরিচালক  আব্দুস সালাম, মসলা গবেষণা কেন্দ্র শিবগঞ্জ,বগুড়ার উর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা মাসুদ আলম এবং বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা শামসুন্নাহার।

 

মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে মসলার উন্নতজাত ও কলা কৌশল বিষয়ে কৃষকদের সামনে বিস্তারিত তুলে ধরেন মসলা গবেষণা কেন্দ্র শিবগঞ্জ বগুড়ার উর্দ্ধতন বৈজ্ঞানিক কর্মকতা ড. নূর আলম চৌধুরী। এসময় সার্বিক সহযোগীতা করেন টিএমএসএস কৃষি বিভাগ প্রধান  ফুয়াদ হোসেন।

মন্তব্য