| প্রচ্ছদ

আবারও ভারতের স্পিনে কাত কিউইরা

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭০ বার

বিপিএলের ব্যস্ততায় ভারত-নিউজিল্যান্ড ওয়ানডে সিরিজের দিকে নজর দেওয়ার ফুসরত কি মিলছে অধিনায়ক মাশরাফি কিংবা সাকিব-মিরাজদের? যদি মেলে তবে চোখ জ্বলজ্বল করে ওঠার কথা। ভারতের যেখানে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে তাদের পেসে খাবি কাটার কথা সেখানে কিউইদের স্পিনজালে ফেলে দিয়েছে ভারত। পাঁচ ম্যাচ সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচেই ভারতীয় স্পিনে কাত নিউজিল্যান্ডের বাঘা-বাঘা ব্যাটসম্যানরা। দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে স্বাগতিক কিউইদের ৯০ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত। সিরিজে এগিয়ে গেছে ২-০ ব্যবধানে।

বাংলাদেশ আর দিন ১৫ বাদে ছুটবে নিউজিল্যান্ড সফরে। সেখানে দুই ভয় বাংলাদেশ শিবিরে। একদিকে নিউজিল্যান্ডের ট্রেন্ট বোল্ট-সাউদিদের ঠেকানো। অন্যদিকে স্পিন আক্রমণ কাজে লাগবে কিনা সেই চিন্তা। তবে ভারত কিছুটা আশা অবশ্য বাংলাদেশকে দেখাচ্ছে। এর আগে প্রথম ম্যাচে ভারত স্পিনে ফাঁদে ফেলে উড়তে থাকা নিউজিল্যান্ডকে দেড়শ পেরোতেই আটকে দেয়। জয় তুলে নেন ৮ উইকেটে। ওই ম্যাচে কুলদীপ যাদব চারটিসহ স্পিনাররা সাত উইকেট নেন।

এবার দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচেও ভারতীয় স্পিনাররা নিয়েছেন সাত উইকেট। ভারতের চায়নাম্যান স্পিনার কুলদীপ যাদব আবারও নিয়েছেন চার উইকেট। এছাড়া যুজবেন্দ্র চাহাল দুটি এবং কেদার যাদব নিয়েছেন এক উইকেট। বাকি তিন উইকেট ভুবনেশ্বর কুমার এবং মোহাম্মদ শামির। তাদের স্পিন তোপে ৩২৫ রান তাড়া করতে নেমে ২৩৪ রানে থামে কিউইদের ইনিংস।

ভারতের শুরুতে ব্যাট করে বড় ওই সংগ্রহ তোলে। দলের হয়ে খারাপ খেলননি এ ম্যাচে কেউ। শুরুতে ভারতের দুই ওপেনার রোহিত শর্মা এবং শেখর ধাওয়ান দারুণ শুরু করেন। তারা ১৫৪ রানের ওপেনিং জুটি গড়েন। এরপর শেখর ৬৬ রান করে ফিরে যান। রোহিত শর্মা ফেরেন ৮৭ রানে সেঞ্চুরি হাতছাড়া করে। পরে বিরাট কোহলি ৪৩, আম্বাতি রাইডু ৪৭ করে রান করেন। ধোনি শেষটায় ৩৩ বলে ৪৮ রানরে হার না মানা ইনিংস খেলেন। তার সঙ্গে কেদার যাদব ১০ বলে ২৩ রান করে অপরাজিত থাকেন।

নিউজিল্যান্ডের হয়ে আটে নামা ডগ ব্রেসওয়েল ৫৭ রান করেন। আর কেউ বড় রান করতে পারেননি। তবে ৩৪ এবং ২৮ রানে সেট হয়ে সাজঘরে ফেরেন টম লাথাম এবং হেনকি নিকোলাস। এছাড়া কলিস মুনরো ৩১, মার্টিন গাবটিল ১৫, কেন উইলিয়ামসন ২০ এবং রস টেইলর ২২ করে ফিরে যান। তাদের সেট হয়ে ফিরে যাওয়ায় সহজ জয় পায় ভারত।

মন্তব্য