| প্রচ্ছদ

বার্সেলোনা ২, ২ ভ্যালেন্সিয়া

এল ক্লাসিকোর আগে মেসির চোট

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬৭ বার

দল বিপদে পড়লেই জ্বলে ওঠেন তিনি। লা লিগায় আরও একবার বার্সেলোনার ত্রাতা হলেন লিওনেল মেসি। শনিবার ঘরের মাঠে ভ্যালেন্সিয়ার বিপক্ষে ৩২ মিনিটের মধ্যেই ২-০ গোলে পিছিয়ে পড়েছিল বার্সা। এমন দুঃসহ শুরুর পরও মেসির জোড়া গোলের সুবাদে শেষ পর্যন্ত ২-২ গোলের স্বস্তির ড্র নিয়ে মাঠ ছাড়তে পেরেছে কাতালানরা।

তবে দিন শেষে ড্র ছাপিয়ে বড় হয়ে উঠেছে মেসির চোট। খুব গুরুতর না হলেও এল ক্লাসিকোর আগে অধিনায়কের চোটের খবরে শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন বার্সা সমর্থকরা। আগামী বুধবার কোপা দেল রে’র সেমিফাইনালের প্রথম লেগে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদের মুখোমুখি হবে বার্সেলোনা। এই ম্যাচে মেসির খেলা নিয়ে তৈরি হয়েছে অনিশ্চয়তা।

গত পরশু ন্যুক্যাম্পে ম্যাচের ৭০ মিনিটে ভ্যালেন্সিয়া ডিফেন্ডার লাতোর বাজে ট্যাকলে ডান ঊরুতে আঘাত পান মেসি। মাঠের বাইরে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে আবার খেলতে নামলেও ম্যাচের বাকি সময় নিজের ছায়া হয়েই ছিলেন মেসি। জোরে দৌড়াতে পারছিলেন না। ধারণা করা হচ্ছে, পায়ের পেশিতে টান লেগেছে মেসির।

চিকিৎসকদের রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না তার চোট কতটা গুরুতর। তবে বার্সা কোচ আর্নেস্তো ভালভার্দের বিশ্বাস, মেসির চোট তেমন গুরুতর নয়। তারপরও সামান্য ঝুঁকি থাকলেও রিয়ালের বিপক্ষে প্রথম লেগে মেসিকে হয়তো খেলাবে না বার্সা। সেটি হবে বার্সার জন্য বিশাল ধাক্কা। মেসি যে আগুনে ফর্মে আছেন। সব মিলিয়ে শেষ নয় ম্যাচের প্রতিটিতেই গোল করেছেন আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ড।

লা লিগায় এ মৌসুমে তার ২১ গোল ইউরোপের শীর্ষ পাঁচ লিগ মিলিয়েই সর্বোচ্চ। লিগে টানা আট জয়ের পর হোঁচট খেলেও ২২ ম্যাচে ৫০ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষেই রয়েছে বার্সা। শনিবার গামেইরো ও পারেজোর গোলে শুরুতেই বার্সাকে হারের শঙ্কায় ফেলে দিয়েছিল ভ্যালেন্সিয়া। সেই শঙ্কা কাটান মেসি। ৩৯ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ব্যবধান কমনোর পর ৬৪ মিনিটে ভিদালের সহায়তায় সমতাসূচক গোলটি করেন বার্সা অধিনায়ক।

মন্তব্য