| প্রচ্ছদ

উত্তরা গণভবনে নতুন অতিথি

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৮৩ বার। প্রকাশ: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ । আপডেট: ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ।

নাটোরের উত্তরা গণভবনে জন্ম নিয়েছে একটি হরিণ শাবক। দিঘাপতিয়া রাজবাড়িখ্যাত উত্তরা গণভবনের মিনি চিড়িয়াখানায় বুধবার ভোরে শাবকটির জন্ম হয়। হরিণ শাবটির নাম রাখা হয়েছে শুক্লা। এটি নিয়ে গণভবনের মিনি চিড়িয়াখানায় মোট হরিণের সংখ্যা হলো ছয়টি।

এদিকে হরিণ শাবকের জন্ম নেওয়ার খবর পেয়ে বুধবার সকালে জেলা প্রশাসক মোহম্মদ শাহরিয়াজ নবজাতক শাবকটিকে দেখতে গণভবনে যান। তিনি হরিণ শাবকটিকে আদর করেন। এ সময় জেলা প্রশাসকের সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক গোলাম রাব্বি ও নেজারত ডেপুটি কালেক্টর অনিন্দ্য মন্ডল।

অনিন্দ্য মন্ডল বলেন, উত্তরা গণভবনে প্রতিদিনই বিপুল সংখ্যক দর্শনার্থী আসেন। মিনি চিড়িয়াখানায় নতুন অতিথি আসার সংবাদে দর্শনার্থীদের সংখ্যা আরও বাড়বে। জেলা প্রশাসক মোহম্মদ শাহরিয়াজ জানান, শাবকটি সুস্থ রয়েছে। তার সার্বক্ষণিক পরিচর্যা করা হচ্ছে। চিকিৎসক শাবকটির খোঁজ খবর নিচ্ছেন। 

২০১৭ সালে গণপূর্ত বিভাগের নিয়ন্ত্রণ থেকে গণভবনের দায়িত্ব অর্পন করা হয় জেলা প্রশাসনের ওপর। এরপর এটি উন্মুক্ত করা হয় দর্শনার্থীদের জন্য। মিনি চিড়িয়াখানাটিও পুনর্জীবিত করা হয়। এই চিড়িখানায় আনা হয় আফ্রিকান গ্রেপ্যারট, দেশি তোতাপাখি, ময়ুর, টিয়া ও ময়না পাখি। আনা হয় পাঁচটি হরিণও। খবর সমকাল অনলাইন

মন্তব্য