| প্রচ্ছদ

নিপাহ ভাইরাস রোধে খেজুরের রস ফুটিয়ে পানের পরামর্শ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬০ বার। প্রকাশ: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ । আপডেট: ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ।

নিপাহ ভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে খেজুরের রস ফুটিয়ে পান করার পরামর্শ দিয়েছে সরকারের জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)।

মঙ্গলবার রাজধানীর মহাখালীর আইইডিসিআর কার্যালয়ে 'নিপাহ বিস্তাররোধে জনসচেতনতা: গণমাধ্যমের ভূমিকা' শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় প্রতিষ্ঠানটির পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা এ পরামর্শ দেন।

পরিচালক বলেন, নিপাহ ভাইরাসের মূল উৎস খেজুরের রস। খেজুরের রস গাছে হাড়িতে থাকা অবস্থায় বাদুড় ওই রস পান করে এবং রসের মধ্যে প্রস্রব করে। গোপন ক্যামেরার মাধ্যমে তারা দেখতে পেয়েছেন, রসের হাড়ির চারপাশ জাল বা অন্য কিছু দিয়ে ঢেলে দিলেও বাদুর প্রস্রাব করে। ওই প্রস্রাব মিশ্রিত রস পান করে মানুষ নিপাহ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়। তাই খেজুরের রস পান করা কোনোভাবেই নিরাপদ নয়। একমাত্র উপায় ফুটিয়ে খেজুরের রস পান করতে হবে। তাহলে নিপাহ ভাইরাস মুক্ত থাকা সম্ভব হবে।

সেব্রিনা ফ্লোরা আরও বলেন, রাজধানীসহ সারাদেশে মানুষের মধ্যে রীতিমতো আয়োজন করে খেজুরের রস পানের প্রবণতা বাড়ছে। এভাবে কাঁচারস পানের ফলে যে কারও বাদুড়বাহিত মরণব্যাধি নিপাহ রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ছে। চলতি বছর নিপাহ ভাইরাসে তিন জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে এক জনের মৃত্যু হয়েছে। তাই খেজুরের রস পানের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ২০০১ থেকে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত সারাদেশে নিপাহ ভাইরাসে ৩০৩ জন আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ২১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা মোট আক্রান্তের ৬৯ দশমিক ৬৪ শতাংশ।

অনুষ্ঠানে প্রতিষ্ঠানের জ্যেষ্ঠ বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডা. এস এম আলমগীরসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য