| প্রচ্ছদ

বিডি ক্লিনের বই মেলার কর্মসূচী

নির্দিষ্ট ঝুরিতে ময়লা ফেললেই মিলছে মাস্ক অথবা কলম

জাকির আরেফিন শুভ
পঠিত হয়েছে ৪৫১ বার। প্রকাশ: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ । আপডেট: ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ।

মা’র সাথে বই মেলায় বেড়াতে এসে আরাফাতের এবার অন্যরকম একটি অভিজ্ঞতা হলো। চিপসের খালি প্যাকেটটি ময়লার ঝুরিতে ফেলতেই দাঁড়িয়ে থাকা সবুজ পোষাকের আংকেলরা তাকে একটি সুন্দর কলম উপহার দিলো। আচমকা উপহার পেয়ে আরাফাত-তো দারুণ খুশি। ওই আংকেলরা তাকে এটাও শিখিয়ে দিলো যে “ময়লা যেখানে সেখানে না ফেলে নির্দিষ্ট জায়গায় ফেলতে হয়”।

নার্সারি পড়ুয়া আরাফাতই শুধু নয়, বিডি ক্লিনের বদৌলতে এবার মেলায় আসা অনেক শিশুই পরিচ্ছন্নতার এমন চমকপ্রদ শিক্ষা নিয়ে বাড়ী ফিরছে। 
বই মেলায় গেলেই খোকন পার্কের গেটে চোখে পরবে বিডি ক্লিনের বই মেলার শ্লোগান “ময়লা দিয়ে নিয়ে যান মাস্ক অথবা কলম। অভ্যাস বদল করুন যেখানে সেখানে ময়লা ফেলা বন্ধ করুন”। এই কর্মসূচী বিষয়ে মেলাপ্রাঙ্গনেই কথা হয় বিডি ক্লিনের বগুড়ার সমন্বয়ক ফেরদৌস ওয়াহিদ সুমনের সাথে। তিনি পুন্ড্রকথা’কে জানান, পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে শিশুদের উৎসাহ দেয়াটাই আমাদের মূল উদ্দেশ্য। মেলা চলাকালীন নয় দিনই তারা শিশুদের উৎসাহ প্রদানের জন্য এই উপহার কর্মসূচী চালিয়ে যাবেন। 
শিশুদের উৎসাহ প্রদানের এই বিষয়টির ভূয়সী প্রশাংসা করেন মেলায় বেড়াতে আসা সমাজতান্ত্রিক ছাত্রফ্রন্ট বগুড়া জেলার সাধারণ সম্পাদক মাসুকুর রহমান। তিনি বলেন, বিডি ক্লিনের তদারকির কারনে এবারের মেলা প্রাঙ্গন ও শহীদ মিনারটি এখন পর্যন্ত অনেক পরিচ্ছন্ন রয়েছে।
বগুড়ার সমন্বয়ক ওয়াহিদ সুমন জানান, পরিচ্ছন্নতার অভিযান পরিচালনা করা ব্যয়সাপেক্ষ ব্যাপার। এই কাজে ব্যবহৃত গ্লোভস, মাস্ক, ঝুরি, ঝাড় ইত্যাদি ক্রয়ের জন্য বগুড়ার শতাধীক স্বেচ্ছাসেবীদের মধ্যে যারা কর্মজীবি শুধুমাত্র তাদের নিকট থেকেই নামমাত্র আর্থিক সহযোগিতা গ্রহন করা হয়। এছাড়াও বগুড়া জেলা প্রশাসন, পৌরসভা কর্তৃপক্ষ অনেক সহযোগিতা করে থাকেন। উদাহারণ হিসাবে তিনি বলেন, পরিচ্ছন্ন অভিযান শেষে জানানো মাত্রই পৌরসভার মেয়র কিংবা প্রধান প্রকৌশলী গাড়ী দিয়ে ময়লা অপসারনের ব্যবস্থা করে দেন।
বগুড়ায় বিডি ক্লিনের কার্যক্রম শুরু হয় ২০১৮ সালের জুন মাস থেকে। এরপর প্রতি শুক্রবার রেল ষ্টেশন, সাতমাথা, স্কুল কলেজের মত কোন না কোন জনবহুল জায়গায় তারা পরিচ্ছন্নতার কার্যক্রম ধারাবাহিকভাবে চালিয়ে যাচ্ছেন। বই মেলা শেষে বাণিজ্যমেলাতেও তারা ইভেন্ট করবেন বলে পুন্ড্রকথা-কে জানান। 
জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ভিত্তিক সংগঠন “বিডি ক্লিন” ২০১৬ সাল থেকে তাদের কার্যক্রম শুরু করে। মূল উদ্যোক্তা ফরিদউদ্দিন মিলন। শুরুতে ঢাকা কেন্দ্রিক হলেও পরবর্তীতে দেশব্যাপী তাদের সংগঠনের পরিচ্ছন্নতার কার্যক্রম ছড়িয়ে পরে। 

মন্তব্য