| প্রচ্ছদ

পরাগয়নের কারণে বেশি ফলনের সম্ভাবনা

সান্তাহারে আমের মুকুল ও সজনে ফুল থেকে ২৫ দিনে বিশ মণ মধু সংগ্রহ

কাজী আনিসুর রহমান, রাণীনগর উপজেলা (নওগাঁ) সংবাদদাতা
পঠিত হয়েছে ৮৪ বার। প্রকাশ: ১২ মার্চ ২০১৯ । আপডেট: ১২ মার্চ ২০১৯ ।

বগুড়ার সান্তাহারে সরিষার ফুল থেকে মধু আহরণের পর এবার আমের মুকুল ও সজনের ফুল থেকে মধু সংগ্রহ করা হচ্ছে। সান্তাহার পৌর এলাকার হবির মোড় ও ইয়ার্ড কলোনীর কয়েকটি আম ও সজনের বাগান থেকে গেল পঁচিশ দিনে অন্তত ২০ মণ মধু সংগ্রহ করেছে দিনাজপুর থেকে আসা একদল মধু সংগ্রহকারী বা মৌয়াল।
মৌয়াল মাহাবুব আলম জানান, মধু সংগ্রহ করার জন্য এসব বাগানে ২০০টি মৌমাছির বাক্স বসানো হয়েছে। সাত থেকে দশ  দিনের মধ্যে বাক্সগুলো থেকে মধু সংগ্রহ করা হয়। এই মধু সংগ্রহ অভিযান ফেব্রুয়ারী মাস থেকে শুরু হয় এবং মার্চের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত প্রায় মাসব্যাপী চলে। ওই মাসে ২৫ দিনে প্রায় ২০ মন মধু সংগ্রহ করা সম্ভব হয়েছে। চলতি মৌসুমে এই এলাকা থেকে ২৫ মণ মধু সংগ্রহ করার লক্ষ্যমাত্রা হাতে নেওয়া হয়েছিল। এসব মধু প্রতি ৪ হাজার টাকা দরে বিক্রি করা হয়। দেশের বিভিন্ন কোম্পানি এসব মধুর ক্রেতা।  

বাগান মালিকরা জানান, আমের মুকুল ও সজনের ফুল থেকে মধু সংগ্রহ করার সময় মৌমাছির পরাগায়নের কারণে ফলন বৃদ্ধি পায়। ফলে এবছর আম ও সজনের ফলন ভালো হবে বলেও তার মনে করেন।
মধু ক্রেতা আবু সাঈদ সাগর জানান, বাজার থেকে কিনলে খাঁটি মধু পাওয়া যায় না। আর মৌয়ালদের কাছ থেকে কিনলে খাঁটি মধু পাওয়া যায়।

মন্তব্য