| প্রচ্ছদ

থানায় শ্বশুড়ের অভিযোগ

আদমদীঘিতে দুই সন্তান রেখে প্রবাসীর স্ত্রী উধাও!

আদমদীঘি উপজেলা (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১১৩ বার। প্রকাশ: ১৬ মার্চ ২০১৯ । আপডেট: ১৬ মার্চ ২০১৯ ।

বগুড়ার আদমদীঘিতে ৭ এবং ৫ বছর বয়সী দুই সন্তান রেখে মৌসুমী আক্তার (২৭) নামে এক গৃহবধু পালিয়ে গেছে। সে উপজেলার তেতুলিয়া গ্রামের ইমরান হোসেনর স্ত্রী। ইমরান বর্তমানে মালয়েশিয়ায় অবস্থান করছে। পুত্রবধু মৌসুমীর পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় তার শ্বশুড় আশরাফ আলীর পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার আদমদীঘি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। তাতে ওই ঘটনায় একই গ্রামের জনৈক আমিন ফকিরকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

থানায় দাখিল করা অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে,প্রায় নয় বছর আগে আদমদীঘি উপজেলার উথরাইল গ্রামের খোকা মিয়ার মেয়ে মৌসুমী আক্তারের সঙ্গে ইমরান হোসেনের বিয়ে হয়। সিনহাজ মন্ডল নামে ৭ বছর বয়সী এবং মদিনা খাতুন নামে ৫ বছরের দুই সন্তান রয়েছে। ইমরান হোসেন দুই বছর আগে চাকরির খোঁজে মালোশিয়া যায়।  অভিযোগে বলা হয়, গৃহবধু মৌসুমী আক্তার প্রায় তিন মাস আগে একই গ্রামের ইউনুছ আলীর ছেলে আমীন ফকিরের সাথে পরকীয়ায় জড়িয়ে পড়ে। বিষয়টি জানার পর তার শ্বশুড়  আশরাফ আলী উভয়কে নিষেধ করে । এক পর্যায়ে গত ৬ মার্চ বিকেল ৫টার দিকে  মৌসুমী আক্তার তার দুই সন্তানসহ বাবার বাড়িতে যায়। পরদিন ৭ মার্চ মোবাইল ফোনে বাদিকে জানানো হয় মৌসুমী তার দুই সন্তান রেখে নিখোঁজ হয়েছে। অভিযোগে বলা হয়, মৌসুমী বাবার বাড়ি যাবার সময় তার স্বামীর পাঠানো নগদ টাকা ও স্বর্ণলংকারসহ প্রায় আড়াই লাখ টাকার মালামাল নিয়ে গেছে। ্আদমদীঘি থানার এএসআই ইকবাল হোসেন জানান, তারা ঘটনাটি তদন্ত করছেন।

মন্তব্য