| প্রচ্ছদ

ড্রেজার ও প্লাস্টিকের পাইপ ধ্বংস

বগুড়ার শেরপুরে অবৈধ বালু মহালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১৯২ বার। প্রকাশ: ১৯ মার্চ ২০১৯ । আপডেট: ১৯ মার্চ ২০১৯ ।

বগুড়ার শেরপুরে বাঙালী ও করতোয়া নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করেছে উপজেলা প্রশাসন। অভিযানের প্রথমদিনেই উপজেলার খানপুর ইউনিয়নের খানপুর পূর্বপাড়া এলাকায় একটি অবৈধ বালু মহালে অভিযান চালানো হয়েছে। এসময় বাঙালী নদী থেকে বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেয়াসহ দুইটি ড্রেজার মেশিন, প্লাস্টিক পাইপ জব্দ করে। পরে এসব খননযন্ত্র ও পাইপে আগুনে জ্বালিয়ে পুড়ে ধ্বংস করা হয়।  মঙ্গলবার (১৯মার্চ) বিকেলে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) মো. আরাফাত হোসেনের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালতের এই অভিযান পরিচালিত হয়।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. লিয়াকত আলী সেখ এই তথ্য নিশ্চিত করে জানান, একটি স্বার্থন্বেষী মহল এই উপজেলার মধ্যদিয়ে বহমান করতোয়া ও বাঙালী নদীতে অবৈধভাবে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করে আসছে। দীর্ঘদিন থেকে এভাবে বালু ও মাটি উত্তোলনের কারণে আশপাশের ফসলি জমি এবং অসংখ্য বসতবাড়ি ধ্বসে নদীগর্ভে বিলীন হয়ে যাওয়ার শঙ্কা তৈরী হয়েছে। তাই ভুক্তভোগীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনকারীদের বিরুদ্ধে উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে অভিযান শুরু হয়েছে। যেসব পয়েন্ট থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করা হবে তাদের কাউকেই ছাড় দেয়া হবে না। ভ্রাম্যমাণ আদালতের এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। এই কর্মকর্তা আরও জানান, অভিযানের প্রথমদিনেই খানপুর পূর্বপাড়া এলাকায় বালু উত্তোলনকারীদেরও পাওয়া না গেলের তাদেও খননযন্ত্র ড্রেজার মেশিন ও প্লাস্টিকের পাইপে আগুন জ্বালিয়ে পুড়ে ভস্মিভূত করা হয়েছে এই কর্মকর্তা জানান।
 

মন্তব্য