| প্রচ্ছদ

বাংলাদেশের প্রবৃদ্ধি হতে পারে ৭.৩% বিশ্ব ব্যাংকের হিসাব

পুন্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৩৯ বার। প্রকাশ: ১০ এপ্রিল ২০১৯ । আপডেট: ১০ এপ্রিল ২০১৯ ।

 

 

বিশ্ব ব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার ‘বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট: রেগুলেটরি প্রেডিক্টেবলিটি ক্যান সাসটেইন হাই গ্রোথ’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে সংস্থাটির আবাসিক প্রতিনিধি রবার্ট জে শোম। ছবি: আসিফ মাহমুদ অভি

বিশ্ব ব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ে বৃহস্পতিবার ‘বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট: রেগুলেটরি প্রেডিক্টেবলিটি ক্যান সাসটেইন হাই গ্রোথ’ শীর্ষক প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে সংস্থাটির আবাসিক প্রতিনিধি রবার্ট জে শোম। সুত্র : বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম। 

বর্তমান বিশ্ব পরিস্থিতিতে ৭ দশমিক ৩ শতাংশ প্রবৃদ্ধিও ‘অনেক’ মন্তব্য করে বিশ্ব ব্যাংকের আবাসিক প্রতিনিধি রবার্ট জে শোম বলেছেন, বিশ্বে সবচেয়ে দ্রুত বাড়তে থাকা পাঁচ অর্থনীতির একটিতে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বিশ্ব ব্যাংকের আবাসিক কার্যালয়ে বাংলাদেশের অর্থনীতির হাল হকিকত নিয়ে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন প্রকাশ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

‘বাংলাদেশ ডেভেলপমেন্ট আপডেট: রেগুলেটরি প্রেডিক্টেবলিটি ক্যান সাসটেইন হাই গ্রোথ’ শীর্ষক ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, বেসরকারি খাতে বিনিয়োগের উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি না হলেও রপ্তানি ও রেমিটেন্সে ভর করে বাংলাদেশ চলতি অর্থবছরে ৭ দশমিক ৩ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধি পেতে পারে।

বিশ্ব ব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ের প্রধান অর্থনীতিবিদ জাহিদ হোসেন বলেন, “রপ্তানি, আমদানি, রাজস্ব আদায়, বেসরকারি বিনিয়োগ এবং সরকারি বিনিয়োগসহ অর্থনীতিক সূচকগুলো বিশ্লেষণ করে চলতি অর্থবছরে এই প্রবৃদ্ধি হবে বলে আমরা ধারণা করছি।”

গত অর্থবছর ৭ দশমিক ৮৬ শতাংশ প্রবৃদ্ধি পাওয়ার পর ২০১৭-১৮ অর্থবছরের বাজেটে ৭ দশমিক ৪ শতাংশ জিডিপি প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য ঠিক করেছিল সরকার।

কিন্তু অর্থবছরের প্রথম আট মাসের (জুলাই-ফেব্রুয়ারি) তথ্য বিশ্লেষণ করে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো যে প্রাক্কলন করেছে, তাতে অর্থবছর শেষে জিডিপি প্রবৃদ্ধি হতে পারে রেকর্ড ৮ দশমিক ১৩ শতাংশ।

এশীয় উন্নয়ন ব্যাংক-এডিবি বুধবার তাদের বার্ষিক প্রতিবেদন এশিয়ান ডেভেলপমেন্ট আউটলুকে যে পূর্বাভাস দিয়েছে, তা সরকারের প্রাক্কলন থেকে সামান্য কম হলেও বিশ্ব ব্যাংকের পূর্বাভাসের চেয়ে বেশি।  

এডিবি মনে করছে, রপ্তানি ও সরকারি বিনিয়োগে ইতিবাচক ধারা অব্যহত থাকায় বাংলাদেশ এবার ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি পেতে পারে।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে বিশ্ব ব্যাংকের অর্থনীতিবিদ জাহিদ হোসেন বলেন, “এটা তাদের কাছে জানতে চাইতে পারেন, আমাদের হিসেবে আমরা এটা পেয়েছি।”

বিশ্ব ব্যাংকের আবাসিক প্রতিনিধি রবার্ট জে শোম এ সময় বলেন, “এই প্রবৃদ্ধি অনেক, বিশ্বে যে পাঁচ দেশের জিডিপি সবচেয়ে দ্রুত বাড়ছে, তার মধ্যে বাংলাদেশ একটি।”

প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, বর্তমানে বিশ্বে ইথিওপিয়া (৮.৮%), রুয়ান্ডা (৭.৮%), ভুটান (৭.৬%) এবং ভারতের (৭.৫%) জিডিপি প্রবৃদ্ধির হারই কেবল বাংলাদেশের চেয়ে বেশি।

জিডিপি প্রবৃদ্ধির এই ইতিবাচক ধারা অব্যাহত রাখতে ব্যাংক খাতের সংস্কার, রাজস্ব আদায় বাড়ানোসহ অর্থনীতির বড় বড় খাতের চ্যালেঞ্জগুলো মোকাবেলায় মনোযোগ দেওয়ার পরামর্শ দেন বিশ্ব ব্যাংকের আবাসিক প্রতিনিধি।

মন্তব্য