| প্রচ্ছদ

প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কর্মীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ দিয়েছেন তাঁরা

বগুড়ায় ৩০০ ব্যবসায়ী ও শিল্প মালিককে সম্মাননা দিল সুইসকন্ট্যাক্ট

পুণ্ড্রকথা রিপোর্ট
পঠিত হয়েছে ১৫৬ বার। প্রকাশ: ২৩ এপ্রিল ২০১৯ । আপডেট: ২৩ এপ্রিল ২০১৯ ।

বগুড়ায় প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কর্মীদের কর্মসংস্থানের সুযোগ দেওয়ায় অপ্রাতিষ্ঠানিক খাতের ৩০০ ব্যবসায়ী এবং শিল্প মালিককে সম্মানানা দিয়েছে সুইজারল্যান্ড ভিত্তিক আন্তর্জাতিক বেসরকারি সংস্থা সুইসকন্ট্যাক্ট। মঙ্গলবার দুপুরে স্থানীয় একটি হোটেলে তাদের সম্মাননা জানানো হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করপোরেশনের (বিসিক) চেয়ারম্যান মোঃ মোশতাক হাসান।

 

আয়োজকরা জানান, সম্মাননা প্রাপ্তরা টেইলারিং, পার্লার, ব্লক-বাটিক, মোবাইল ফোন মেরামত, ইলেক্ট্রিক্যাল হাউস ওয়ারিং, গার্মেন্ট মেশিন অপারেটরিং, রিফ্রিজারেশন এবং এয়ার কন্ডিশনিং টেকনিশিয়ান ও মোটর সাইকেল মেরামতের মত অপ্রাতিষ্ঠানিক পেশায় যুক্ত। তারা সুইসকন্ট্যাক্টের ‘বি-স্কিলফুল’ প্রকল্পের আওতায় ‘টিএমএসএস’, ‘গ্রামীণ আলো’ ও ‘রিলায়েবল’ নামে তিনটি সংস্থার প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত কর্মীদের নিজেদের ব্যবসা বা শিল্পে কাজের সুযোগ করে দিয়েছেন।


সুইসকন্ট্যাক্টের পক্ষ থেকে জানানো হয়, বগুড়াসহ পাঁচটি জেলায় তারা ৪০ হাজার অনগ্রসর ও দরিদ্র নারী ও পুরুষকে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে শ্রম বাজারে প্রবেশের সুযোগ দেওয়ার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন। সংস্থাটি আয় বৃদ্ধির পাশাপাশি কর্মক্ষেত্রে তাদের মৌলিক অধিকার সুরক্ষার ব্যবস্থা করতেও বদ্ধ পরিকর। সম্মাননাপ্রাপ্তরা প্রশিক্ষণ কার্যক্রমের আওতা আরও বৃদ্ধির দাবি জানান।
 

সম্মাননাপ্রাপ্তদের অভিনন্দন জানিয়ে বিসিক চেয়ারম্যান মোঃ মোশতাক হোসেন বলেন, তারা যদি তাদের ব্যবসার প্রসার আরও বাড়াতে চান তাহলে বিসিক তাদের সহযোগিতা করবে। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন, বগুড়ায় স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-সচিব সুফিয়া নাজিম, ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের সংগঠন নাবিসের সভাপতি টি. জামান নিকেতা, টিএমএসএসের খোরশেদ আলম, গ্রামীণ আলোর ফেরদৌস আরা, বি-স্কিলফুল সুইসকন্ট্যাক্টের টিম লিডার মতিউর রহমান, সুইসএজেন্সি ফর ডেভলপমেন্ট অ্যান্ড কোঅপারেশনের (এসডিসি) প্রোগ্রাম ম্যানেজার আমিনা চৌধুরী ও ফেরদৌসী বেগম।
 

মন্তব্য