| প্রচ্ছদ

সুষ্ঠু বিচার পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় পরিবার

নওগাঁর রাণীনগরে প্রতিবন্ধী যুবতিকে ধর্ষণের ঘটনায় ১৫ দিনেও গ্রেফতার হয়নি আসামী

কাজী আনিছুর রহমান, রাণীনগর (নওগাঁ)
পঠিত হয়েছে ৪১ বার। প্রকাশ: ২৪ এপ্রিল ২০১৯ । আপডেট: ২৪ এপ্রিল ২০১৯ ।

নওগাঁর রাণীনগরে বুদ্ধি ও বাকপ্রতিবন্ধী যুবতিকে ধর্ষণের ঘটনায় মামলা দায়েরের ১৫ দিনে পার হলেও আসামী গোবিন্দ চন্দ্র গ্রেফতার হয় নি বলে পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ  উঠেছে। সুষ্ঠু বিচার পাওয়া নিয়ে শঙ্কায় পরেছেন পরিবারটি। আসামী পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না বলে জানায় পুলিশ। তবে দ্রুত আসামীকে গ্রেফতার করা যাবে বলে পরিবারটিকে আশ্বস্ত করা হয়। 
 

স্থানীয় ও পুলিশ সুত্রে জানা যায়, রাণীনগর উপজেলার আতাইকুলা পালপাড়া গ্রামের মৃত দুলাল চন্দ্রের ছেলে গোবিন্দ চন্দ্র ওরফে সুটকা (৬০) গত ১০ এপ্রিল বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় প্রত্যন্ত অঞ্চলের বুদ্ধি ও বাকপ্রতিবন্ধী মেয়ে (২৩) কে বিস্কুট খাওয়ানোর কথা বলে কৌশলে তার বাড়িতে ডেকে নিয়ে যায়। এর পর  ধর্ষণ করে ছেড়ে দিলে যুবতি বাড়ীতে এসে কিছুটা ইশারা ইঙ্গিতে তাকে ধর্ষণের কথা বলে। বিষয়টি ধীরে ধীরে জানাজানি হলে ঘটনাটি নিষ্পত্তি করতে ১১ এপ্রিল রাতে আতাইকুলা গ্রামে বৈঠকের মাধ্যমে নিরশনের চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। এরপর আসামীকে কৌশলে পালিয়ে যেতে সাহায্য করা হয় বলে অভিযোগ পরিবারের। এ ঘটনায় ওই প্রতিবন্ধীর বাবা বাদী হয়ে গত ১২ এপ্রিল সকালে গোবিন্দকে আসামী করে রাণীনগর থানায় ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

 

এ ব্যাপারে প্রতিবন্ধীর মা বলেন, 'ঘটনার ১৫ দিন অতিবাহিত হয়ে গেল অথচ একমাত্র আসামী গোবিন্দকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। আজ-কাল টাকার কাছে যদিও সব কিছু বক্রি হয়ে যায়, তার পরেও পুলিশের লোকজন আমাদেরকে সুষ্ঠু বিচার পাওয়ার বিষয়ে আশ্বস্ত করেছেন। আশা করছি ন্যায় বিচার পাবো। তার পরেও দীর্ঘ ১৫ দিনেও আসামী গ্রেফতার না হওয়ায় হতাশা প্রকাশ করেছেন তিনি।' 
 

রাণীনগর থানার ওসি এসএম সিদ্দিকুর রহমান জানান, আসামী পলাতক থাকায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না। আসামী দেশের যে প্রান্তেই থাকনা কেন সন্ধান পাওয়া মাত্রই তাকে গ্রেফতার করা হবে। এছাড়াও সুষ্ঠু বিচারে যতটুকু আইনি সহায়তা প্রয়োজন তা করা হবে বলেও জানান তিনি।

মন্তব্য