| প্রচ্ছদ

লাউয়াছড়ায় উদ্ধার নবজাতক পরীর পিতা মাতার সন্ধান

শ্রীমঙ্গল (মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১১৫ বার। প্রকাশ: ২৯ এপ্রিল ২০১৯ । আপডেট: ২৯ এপ্রিল ২০১৯ ।

মৌলভীবাজারের লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের জানকীছড়া এলাকা থেকে কুড়িয়ে পাওয়া নবজাতক শিশু কন্যা পরী’র পিতা মাতার সন্ধান পেয়েছে শ্রীমঙ্গল থানা পুলিশ। শিশুটির পিতা কালাপুর ইউনিয়নের ভাগলপুর গ্রামের বাসিন্দা সিএনজি চালক অরুন কর। রবিবার রাত ১১টায় শ্রীমঙ্গল শহর থেকে তাকে আটক করা হয়।
শ্রীমঙ্গল থানার পুলিশ পরিদর্শক তদন্ত মো.সোহেল রানা জানান, নবজাতক উদ্ধারের পর তারা বিভিন্ন ভাবে খবর খুঁজতে থাকেন এ নবজাতকের পিতা মাতা কারা। এক পর্যায়ে কালাপুর ইউনিয়নের ভাগলপুর গ্রামে ওই নবজাতকের মায়ের অবস্থান নিশ্চিত হয়ে তার সাথে দেখা করেন। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে প্রতিবেশী সিএনজি চালক অরুন করকে আটক করে পুলিশ। 
পুলিশ জানান, অরুন কর বাড়ীর পাশের অপ্রাপ্ত বয়স্ক এক কিশোরীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তোলে। পরে মেয়েটির গর্ভজাত সন্তান ভুমিষ্ট হলে অরুন লাউয়াছড়া বনে ফেলে আসে। পাষন্ড অরুন কর বিবাহিত ও দুই সন্তানের জনক। এ বিষয়ে শ্রীমঙ্গল থানায় মামলা হয়েছে। 
গত বুধবার সকালে লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যানের জানকীছড়া এলাকা থেকে জীবিত নবজাতক শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। পরে শ্রীমঙ্গল স্বাস্থ্য কমপ্লে´ ভর্তি করা হলে সেখানে কর্মরত চিকিৎসক কর্মচারীরা কন্যাটির নাম রাখেন পরী। বর্তমানে পরী মৌলভীবাজার সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

 

মন্তব্য