| প্রচ্ছদ

নওগাঁর ধামইরহাটে ইটভাটার বিষাক্ত কালো ধোঁয়ায় নষ্ট হচ্ছে কলা বাগানসহ বিভিন্ন ফসল

নওগাঁ প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ১২৫ বার। প্রকাশ: ০৪ মে ২০১৯ । আপডেট: ০৪ মে ২০১৯ ।

নওগাঁর ধামইরহাট উপজেলার আগ্রাদ্বিগুন-রাঙ্গামাটি রাস্তার পাশে কৃষি জমিতে স্থাপিত ইটভাটার বিষাক্ত কালো ধোঁয়ায় পুড়ছে শতাধিক বিঘা জমির ফসল। এসব এলাকার কলা বাগানের গাছের পাতা পুড়ে যাচ্ছে। প্রায় ১০ একর জমির বোরো ধান কালচে রং ধারন করায় হতাশ হয়ে পড়েছে ওই এলাকার কৃষকরা। এছাড়া ৪ বিঘা জমিতে নাক ফজলি, বারি-৪সহ বিভিন্ন উন্নত জাতের আম ও বিপুল পরিমান পেয়ারা গাছ ইট ভাটার ধোঁয়ায় পুড়ছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। এই ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থরা প্রতিকার চেয়ে উপজেলা নির্বার্হী অফিসার বরাবর লিখিত অভিযোগ করেছেন। 
 

সরেজমিনে ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখা গেছে, প্রায় ১২০ বিঘা জমিতে মানিক, চিনিচাম্পা, ও বিভিন্ন জাতের কলা রোপন করেছেন ইটভাটা সংলগ্ন আলমপুর ইউনিয়নের চৌঘাট, রসপুর, ও নন্দনপুর গ্রামবাসী। 
 

অভিযোগকারী কলা চাষী কাজেম আলী, তরিকুল ইসলাম, নুর ইসলাম, আম বাগান চাষী ফরিদুল ইসলাম জানান, এসব ফল বাগান ও কৃষি জমির ৮০ থেকে ৯০ হাত দুরে পর পর ৪টি ইটভাটা রয়েছে। এই ইট ভাটার বিষাক্ত ধোঁয়ায় কলা গাছের পাতা মরে যাচ্ছে। ধানে লালচে রং ধারন করেছে। ইতিপূর্বে অভিযোগ করেও কোন লাভ হয়নি। ভাটা মালিকরা ইটভাটা বন্ধ না করে তারা দেদারছে ব্যবসা করে আসছে।

এদিকে ইটভাটা মলিকদের একজন মিজানুর রহমান অভিযোগ স্বীকার করে বলেন, এই বিষয়ে স্থানীয় ইউপি সদস্য ও চেয়ারম্যানদের নিয়ে আমরা ক্ষতিগ্রস্থদের ডেকে সমঝোতার মাধ্যমে কিছু টাকা দিয়েছি। এরপর কোন অভিযোগ থাকার কথা নয়।  
 

ধামইরহাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার গনপতি রায় বলেন, ভুক্তভোগী ৫৫ জন কৃষকের লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

মন্তব্য