| প্রচ্ছদ

জীবন শঙ্কায় সুবীর নন্দী

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬০ বার। প্রকাশ: ০৬ মে ২০১৯ । আপডেট: ০৬ মে ২০১৯ ।

সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন নন্দিত সংগীতশিল্পী সুবীর নন্দীর শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়েছে। তার অবস্থা সংকটাপন্ন বলে জানিয়েছেন তার চিকিৎসকরা।

সুবীর নন্দী বর্তমানে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। তার চিকিৎসার সমন্বয় করছেন শেখ হাসিনা বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটের সমন্বয়ক ডা. সামন্ত লাল সেন।

তিনি জানিয়েছেন, পরপর দুদিন হার্ট অ্যাটাক হয়েছে সুবীর নন্দীর। শনি ও রোববার। তার হার্টে চারটা ব্লক ছিল। রোববার সকালে ওটিতে নিয়ে তাকে চারটা রিং পরানো হয়েছে। সব মিলিয়ে তার অবস্থা মোটেও ভালো নয়।

ঢাকা থেকে সিঙ্গাপুর টানা ১৮ দিন হাসপাতালের বিছানায় চোখ-বুজে নিথর পড়েছিলেন সুবীর নন্দী। অবশেষে গত ৩ মে চোখ মেলেন তিনি, মেয়ে ফাল্গুনীকে দেখে কাঁদেন। সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতাল থেকে ভেসে আসা এই কান্নার খবর সুখের বার্তা হয়ে ধরা দিয়েছে সুবীর নন্দীর স্বজন-ভক্তদের কাছে।

এই অশ্রু আশার আলো জ্বালিয়েছিল তার স্বজনদের মধ্যে।

শুক্রবার সুবীরের মস্তিষ্ক কাজ করে। চিকিৎসকরা এতে বেশ আশাবাদী হয়ে ওঠেন। স্বস্তির দেখা পায় তার পরিবার।

এমন স্বস্তির খবরের কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে শনি ও রোববার দুই দফা হার্ট অ্যাটাক হয় সুবীর নন্দীর। এটিকে ‘সংকটাপন্ন’ অবস্থা বলে বর্ণনা করেন চিকিৎসকরা।

এর আগে মঙ্গলবার কিংবদন্তি এ কণ্ঠশিল্পীকে চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশে সুবীর নন্দীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে নেয়া হয়। তার সঙ্গে আছেন মেয়ে ফাল্গুনী নন্দী।

গত ১৪ এপ্রিল রাতে পরিবারসহ সিলেট থেকে ফিরছিলেন সুবীর নন্দী। উত্তরার কাছাকাছি আসতেই হঠাৎ তার শারীরিক অবস্থা খুব খারাপ হয়ে যায়। বাধ্য হয়ে তাকে ট্রেন থেকে নামিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে করে সিএমএইচে নেয়া হয়েছে।

দীর্ঘ ৪০ বছরের ক্যারিয়ারে সুবীর নন্দী গেয়েছেন আড়াই হাজারেরও বেশি গান। বেতার থেকে টেলিভিশন, তারপর চলচ্চিত্রেও উপহার দিয়েছেন অসংখ্য জনপ্রিয় গান।

১৯৮১ সালে তার প্রথম একক অ্যালবাম 'সুবীর নন্দীর গান' ডিসকো রেকর্ডিংয়ের ব্যানারে বাজারে আসে।

তবে চলচ্চিত্রে তিনি প্রথম গান করেন ১৯৭৬ সালে আব্দুস সামাদ পরিচালিত 'সূর্যগ্রহণ' চলচ্চিত্রে।

চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক করে চারবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেছেন তিনি। আর চলতি বছরে সংগীতে অবদানের জন্য বাংলাদেশ সরকার সুবীর নন্দীকে দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা একুশে পদকে ভূষিত করেছে।

এর আগে ১৯৯৮ সালেও সুবীর নন্দীর চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রী দুই দফায় সব ধরনের সহযোগিতা দিয়েছেন বলে উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন জানিয়েছে।

মন্তব্য