| প্রচ্ছদ

ভারতের আসানসোলের সেই ইমামের পক্ষে দাঁড়ালেন গায়ক কবির সুমন: রচনা করলেন গান

ডেস্ক রিপোর্ট:
পঠিত হয়েছে ৩০৫ বার

ভারতের পশ্চিমবঙ্গের আসানসোলে গেল ২৫ মার্চ রাম নবমীর মিছিলকে কেন্দ্র করে সৃষ্ট উত্তেজনায় স্থানীয় নূরানী মসজিদের ইমামের ছেলে নিখোঁজ হয়। পরদিন ষোল বছর বয়সী শিবতুল্লাহ্্ রশিদী নামে সেই কিশোরের মৃতদেহ পাওয়ার পর সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা ছড়িয়ে পড়ে। তবে পুত্রশোকে কাতর সেই ইমাম ইমদাতুল্লাহ্্ রশিদি তাঁর ছেলের জানাজার পূর্বে এলাকাবাসীকে শান্ত থাকার আহবান জানান।
ইমাম ইমদাতুল্লাহ্্ রশিদি উপস্থিত লোকজনকে বলেন, ‘কোনও প্রতিহিংসা নয়। প্রতিশোধ নিতে যদি কারোর মৃত্যু ঘটানো হয় তাহলে আমি এই শহর ছেড়ে চলে যাব। আমি তোমাদের সঙ্গে ৩০ বছর ধরে আছি, আমাকে যদি তোমরা ভালবাস তাহলে আার কাউকে যেন এভাবে মরতে না হয়।’ রশিদীর এমন কথা সারাবিশ্বের মানুষের হৃদয় ছুঁয়ে যায়। মানবতার পক্ষে তাঁর এই অবস্থান কবি গায়ক কবির সুমনের মনকেও প্রবলভাবে নাড়া দেয়। এ নিয়ে তিনি ফেসবুকে দেওয়া একটি পোস্টে ওই ইমামকে ‘ভারতরত্ন’ খেতাবে ভূষিত করারও দাবি জানান। কিন্তু কট্টরপন্থীরা তাঁর এই অবস্থানকে সহজভাবে নিতে পারেন নি। তাইতো গণরিপোর্ট করে কবির সুমনের ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি ব্লক করে দেয়। অবশ্য দ্রোহের কবি হিসেবে পরিচিত কবির সুমন থেমে থাকেন নি। তিনি সেই ইমামের জন্য কয়েক লাইনের একটি গান লিখে ফেলেন। তারপর সেটি ইউটিউবে আপলোড করেন। সবার প্রতি সেই গানটি চারদিকে ছড়িয়ে আহবান জানিয়ে কবির সুমন বলেন, ‘ইমাম রশিদিকে নিয়ে কতা বলায় এর আগে আমার ফেসবুক একাউন্ট ব্লক করা হয়েছে। এই গানটি তাই আমি আমার ফেসবুকে দিচ্ছি না। তাহলে এই একাউন্টটাও ব্লক করে দেওয়া হবে। আপনার এই গানটি ছড়িয়ে দিন।’

মন্তব্য