| প্রচ্ছদ

বগুড়া আ: হ: কলেজে আরও ১৯টি বিষয়ে অনার্স কোর্স চালুর প্রস্তাব

অরূপ রতন শীলঃ
পঠিত হয়েছে ৫৭০৪ বার। প্রকাশ: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ । আপডেট: ০৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮ ।

বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজে নতুন করে আরও ১৯টি বিষয়ে অনার্স কোর্স চালুর প্রস্তাব করা হয়েছে। কর্তৃপক্ষ বলছেন, খোদ শিক্ষা মন্ত্রণালয়ই কলেজটিতে নতুন নতুন বিষয়ে অনার্স কোর্চ চালু করতে আগ্রহী। এজন্য মন্ত্রণালয়ের কলেজ শাখা থেকে চলতি বছরের ১১ জুলাই অধ্যক্ষের কাছে নির্ধারিত ছকে তথ্য চাওয়া হয়।


সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের চাহিদার পরিপ্রেক্ষিতে কলেজ প্রশাসন প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থী সংখ্যা, বর্তমানে যেসব বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু রয়েছে, আগামীতে কোন কোন বিষয় চালু করা প্রয়োজন তার বিবরণ এবং মোট শিক্ষকের সংখ্যাসহ ভৌত অবকাঠামোগত সুবিধার কথা উল্লেখ করে গত ১৭ জুলাই একটি প্রস্তাবনা ঢাকায় পাঠিয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, তথ্য প্রযুক্তি নির্ভর বর্তমান বিশ্বে দক্ষ মানব সম্পদ তৈরিতে প্রস্তাবিত বিষয়গুলো অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে।


ওই কলেজটিতে নতুন যে ১৯টি বিষয়ে অনার্স কোর্স চালুর প্রস্তাব করা হয়েছে সেগুলো হলো- কম্পিউটার বিজ্ঞান, পরিবেশ বিজ্ঞান, মৃত্তিকা বিজ্ঞান, প্রাণ-রসায়ন, নৃ-বিজ্ঞান, লাইব্রেরী ও তথ্য বিজ্ঞান, বিএড, গার্হস্থ্য অর্থনীতি, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি, টুরিজম অ্যান্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট, আইন, ফিশারিজ, পপুলেশন সাইন্স অ্যান্ড হিউম্যান রিসোর্স ডেভলপমেন্ট, ফ্যাশন ডিজাইন, ব্যাংকিং ও বিমা, সঙ্গীত ও নাট্যকলা, গ্রাফিক্স ডিজাইন, গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা এবং প্রফেশনাল বিবিএ।


প্রায় ৮০ বছর আগে ১৯৩৯ সালে প্রতিষ্ঠিত সরকারি আজিজুল হক কলেজ সার্বিক ফলাফলসহ ৩১টি সূচকের ভিত্তিতে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের করা সর্বশেষ র‌্যাঙ্কিংয়ে পঞ্চম স্থান অর্জন করেছে। ওই কলেজে বর্তমানে ২৩টি বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স কোর্স চালু রয়েছে। এছাড়া ডিগ্রী এবং উচ্চ মাধ্যমিকেও শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়। সব মিলিয়ে সেখানে প্রায় ৩৩ হাজার ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি ২৭ হাজার ৯০৬জন শিক্ষার্থী রয়েছে অনার্স ও মাস্টার্সে। এছাড়া ডিগ্রীতে রয়েছে ২ হাজার এবং বাদবাকি ৩ হাজার ৩১জন শিক্ষার্থী উচ্চ মাধ্যমিকের। শিক্ষকের পদ রয়েছে ১৮৪টি। তবে কর্মরত রয়েছেন ১৭৭জন।


নতুন ১৯টি বিষয়ে অনার্স কোর্স চালুর যৌক্তিকতা ব্যাখ্যা করতে গিয়ে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাবনায় বলা হয়েছে, সরকারি আজিজুল হক কলেজ দেশের একটি প্রাচীন কলেজ এবং উত্তরবঙ্গের একমাত্র নির্ভরযোগ্য উন্নত বিদ্যাপীঠ। এই কলেজ থেকে কয়েক কিলোমিটার দূরে দু’টি কলেজে কিছু বিষয়ে অনার্স পাঠদান করা হলেও গুণগত দিক থেকে মানসম্মত নয়। তাছাড়া বগুড়া এবং এর পার্শ্ববর্তী জেলা সমূহে কোন পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয় না থাকায় সমগ্র উত্তরবঙ্গের দরিদ্র ও মেধাবী শিক্ষার্থীরা একমাত্র সরকারি আজিজুল হক কলেজে উচ্চ শিক্ষার উপযোগী প্রতিষ্ঠান হিসেবে বিবেচনা করে। ওই প্রস্তাবনায় নতুন বিষয়ে অনার্স কোর্স চালুর ক্ষেত্রে কলেজটির ভৌত অবকাঠামোগত সুবিধা রয়েছে বলেও উল্লেখ করা হয়।


সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, সাধারণত অনার্স কোর্সে প্রতিটি বিষয়ের জন্য বিভাগীয় প্রধানসহ ১২জন শিক্ষক প্রয়োজন। কিন্তু বর্তমানে কোন বিভাগেই তা নেই। শিক্ষকের পদ সৃজন না হওয়ায় বর্তমানে কোন কোন বিভাগে ২ থেকে ৪ জন শিক্ষক দিয়েও পাঠদান করানো হচ্ছে। সেই বাস্তবতায় কর্তৃপক্ষ মনে করেন নতুন একেকটি বিষয়ের জন্য ন্যূনতম ৪জন করে শিক্ষক প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে ১৯টি বিভাগের জন্য ৭৬জন শিক্ষক অবশ্যই প্রয়োজন।


তবে শিক্ষকের অভাবে যাতে নতুন কোর্স চালুর বিষয়টি ঝুলে না যায় সেজন্য বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের অধ্যক্ষের পক্ষ থেকে মন্ত্রণালয়ে পাঠানো প্রস্তাবনায় বিকল্প হিসেবে সরকারিভাবে শিক্ষকের পদ সৃজন না হওয়া পর্যন্ত কলেজের নিজস্ব তহবিল থেকে আউট সোর্সিংয়ের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগ করে পাঠদানের কথা বলা হয়েছে।


বগুড়া সরকারি আজিজুল হক কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ শাহজাহান আলী বলেন, ‘আমরা যেসব বিষয়ে অনার্স কোর্স চালুর কথা বলেছি সেগুলো খুবই যুগপযোগী।’ কবে নাগাদ কোর্সগুলো চালু হবে-এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘প্রস্তাবটি বর্তমানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। আশা করছি খুব শিগগিরই অনুমোদন পাওয়া যাবে।’

মন্তব্য