| প্রচ্ছদ

বিএনপির ৩ জন

বগুড়া-৬ উপনির্বাচনঃ মনোনয়নপত্র জমা দিলেন ১১ জন

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ১২৪ বার

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ না নেওয়ায় শুন্য হয়ে যাওয়া বগুড়া-৬ সদর আসনের উপ-নির্বাচনে বিএনপির ৩ জনসহ ১১ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। 

বৃহস্পতিবার ছিল মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ দিন। জেলা সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা মাহাবুব আলম শাহ্ ১১ জন প্রার্থীর মনোননপত্র জমা দেওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিএনপি থেকে যারা মনোনয়পত্র দাখিল করেছেন তারা হলেন-জেলা বিএনপির সদ্য ঘোষিত আহবায়ক কমিটির আহবায়ক বগুড়া-৫ আসনের সাবেক সাংসদ গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ, জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা ও বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা বগুড়া পৌরসভার মেয়র অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান।

আওয়ামী লীগ দলীয় প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক টি জামান নিকেতা, জাতীয় পার্টি থেকে সাবেক সাংসদ ও জাতীয় সংসদের সাবেক বিরোধীদলীয় চিফ হুইপ নুরুল ইসলাম ওমর, নতুন নিবন্ধন পাওয়া রাজনৈতিক দল বাংলাদেশ কংগ্রেসের জেলা শাখার সভাপতি ড.মুনসুর রহমান, মুসলিম লীগের মুফতি মোহাপম্মদ রফিকুল ইসলাম এবং স্বতন্ত্র থেকে সাবেক মোটর শ্রমিক নেতা সৈয়দ কবির আহম্মেদ মিঠু, জাফর আলী, আবুল হোসেন ও মিনহাজ মন্ডল। 

বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার নামে মনোননপত্র সংগ্রহ করা হলেও তিনি নির্বাচনে অংশ নিতে আগ্রহী না হওয়ায় তার মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হয়নি বলে দলীয় সূত্রে জানা যায়। এছাড়া জেলা বিএনপির সাবেক সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন মনোনয়নপত্র উত্তোলন করলেও জমা দেননি।  

বিএনপি সূত্র জানান, এ আসনে বিএনপির মূল প্রার্থী গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ। আর দু’জনকে ডামি প্রার্থী হিসেবে রাখা হয়েছে। যাচাই বাছাইয়ে কোন কারণে গোলাম মোহাম্মদ সিরাজের মনোনয়নপত্র বাতিল হলে সেক্ষেত্রে অপর ডামি প্রার্থীদের মধ্যে থেকে রেজাউল করিম বাদশাকে মূল প্রার্থী করা হবে।

বৃহস্পতিবার জেলা নির্বাচন কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার পর সাংবাদিকদের তাৎক্ষণিক প্রশ্নের জবাবে গোলাম মোহাম্মদ সিরাজ বলেন, দলের হাইকমান্ডের সিদ্ধাতেই আমি প্রার্থী হয়েছি। এটি যেহেতু বিএনপির আসন, তাই এ আসনে সুষ্ঠুভাবে ভোট হলে বিএনপি প্রার্থী আবারও বিপুল ভোটে জয়ী হবে।

আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী টি জামান নিকেতা বলেন, এ আসনের ভোটাররা বিএনপি প্রার্থীকে সম্মান দেখিয়ে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছিলেন। কিন্তু নির্বাচিত হয়ে তিনি শপথ না নিয়ে জনগণের সঙ্গে বেইমানী করেছেন, জনগণ ও এলাকাকে উন্নয়ন থকে বঞ্চিত করেছেন। তাই আমি আশা করছি মানুষ আর ভুল করবে না। তারা নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করবেন।

নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা যায়, আগামী ২৭ মে মনোনয়নপত্র বাছাই, ৪ জুন প্রতীক বরাদ্দ ও ২৪ জুন নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

মন্তব্য