| প্রচ্ছদ

হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা বাড়ানোর দাবি

বগুড়ার শেরপুরে তিনদফা দাবিতে নাগরিক স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির স্মারকলিপি প্রদান

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৭৩ বার

বগুড়ার শেরপুরে ফুটপাত অবৈধ দখলমুক্তকরণ, মার্কেটের স্যুয়ারেজ লাইনের দুর্গন্ধযুক্ত পানি রাস্তার ওপরে পড়ায় জনদুর্ভোগ নিরসন ও সরকারি হাসপাতালে অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধ করে সেবার মান বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন নাগরিক স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির নেতারা। বুধবার দুপুরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিয়াকত আলী সেখ ও পৌরসভার মেয়র আব্দুস সাত্তারের নিকট দেয়া পৃথক স্মারকলিপির মাধ্যমে এসব দাবি জানানো হয়।

নাগরিক স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির সভাপতি মুনসী সাইফুল বারী ডাবলুর নেতৃত্বে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সুজিত বসাক, যুগ্ম সম্পাদক আইয়ুব আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক রাহুল আলম লিমন, কোষাধ্যক্ষ শাহ জামাল কামাল, সদস্য নাহিদ আল মালেক, কামরুল হাসান, আব্দুল হালীম খোকনসহ সংগঠনের অন্যান্য সদস্যরা এই স্মারকলিপি দেন।

স্মারকলিপিতে তারা উল্লেখ করেন, শেরপুর পৌর শহরের স্যানালপাড়াস্থ পৌর মার্কেট রোডের ফুটপাত অবৈধভাবে দখলে নিয়ে অস্থায়ী দোকান গড়ে তোলা হয়েছে। এতে করে যান চলাচল করতে পারছে না। পথচারীদের চলাচলও বিঘ্নিত হচ্ছে। ফলে সীমাহীন দুর্ভোগ পোহাচ্ছেন তারা। একইসঙ্গে অভিজাত বিপণিবিতান শেরশাহ নিউ মার্কেটের স্যুয়ারেজ লাইনের পানি রাস্তার ওপর প্রবাহিত হচ্ছে। দুর্গন্ধযুক্ত পানিতে নাকাল পথচারীরা। মানুষ হেঁটে বা যানবাহনে ওই এলাকা অতিক্রম করার সময় নাক ধরে পার হচ্ছেন। অথচ এসব দুর্ভোগ নিরসনের উদ্যোগ নেই পৌর কর্তৃপক্ষের।

এছাড়া পাঁচ লাখ মানুষের চিকিৎসেবা নিশ্চিত করতে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সেটি ৩১শয্যা থেকে ৫০শয্যায় উন্নীত করা হলেও সেবার মান বাড়েনি। কেবল মাত্র ৫জন চিকিৎসক কর্মরত রয়েছে, আধুনিক সরঞ্জামাদি সংকট, রোগীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারসহ নানা অনিয়ম-দুর্নীতি আর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তার অবহেলার কারণে হাসপাতালটির চিকিৎসা কার্যক্রম ভেঙে পড়েছে। তাই জনস্বার্থে এসব বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে সরকারের সংশ্লিষ্টদের প্রতি স্মারকলিপিতে দাবি জানানো হয়।

মন্তব্য