| প্রচ্ছদ

দেখুন ছবিতে জমজমাট ঈদ ‌‘ইত্যাদি’

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৯৬ বার। প্রকাশ: ০১ জুন ২০১৯ ।

এবারও ছোট পর্দার বড় আকর্ষণ হয়ে দর্শকদের সামনে হাজির হচ্ছে ঈদ ‘ইত্যাদি’। ঈদ আনন্দের সাথে দর্শকদের জন্য বাড়তি আনন্দ নিয়ে হাজির হচ্ছেন হানিফ সংকেত।
চলমান বর্ষাকালে উন্মুক্ত স্থানে শুটিং করা সম্ভব নয় বলে এবারের পর্বটি ধারণ করা হয়েছে মিরপুর শহীদ সোহরাওয়ার্দী ইনডোর স্টেডিয়ামে। এতে প্রায় তিন ভাগের এক ভাগ স্থানজুড়ে নির্মাণ করা হয়েছিল নান্দনিক সেট।
শিবলী মহম্মদ ও শামীম আরা নিপা

এবারও ‌‌‘ইত্যাদি’ শুরু করা হয়েছে ‘ও মন রমজানের ওই রোজার শেষে এলো খুশির ঈদ’ গানটি দিয়ে। গত তিন দশক ধরেই হাজার হাজার মানুষ নিয়ে ঢাকায় ও দেশের বিভিন্ন স্থানে বিভিন্ন আঙ্গিকে এই গানটি পরিবেশন করে আসছে ‘ইত্যাদি’। নানা শ্রেণিপেশার মানুষের অংশগ্রহণের ধারাবাহিকতায় এবারে নৃত্যে-ছন্দে-আনন্দে চিরচেনা এই গানটি পরিবেশন করবেন নৃত্যজুটি শিবলী মহম্মদ ও শামীম আরা নিপা। তাদের সঙ্গে রয়েছে নৃত্যাঞ্চলের শতাধিক শিল্পী।
এন্ড্রু কিশোর, কুমার বিশ্বজিৎ ও শফি মণ্ডলের মাঝে হানিফ সংকেত

এবারের ঈদ ‘ইত্যাদি’তে একটি দেশাত্মবোধক গান গেয়েছেন নন্দিত শিল্পী এন্ড্রু কিশোর, কুমার বিশ্বজিৎ ও শফি মণ্ডল। গানটি লিখেছেন মোহাম্মদ রফিকউজ্জামান এবং সুর ও সংগীতায়োজন করেছেন সুমন কল্যাণ। গানটির চিত্রায়ণে শিল্পীদের সঙ্গে অংশ নিয়েছেন নির্ঝর ক্যান্টনমেন্ট পাবলিক স্কুল এন্ড কলেজের শতাধিক শিক্ষার্থী।
শহীদুজ্জামান সেলিম, ঈশিতা, হানিফ সংকেত, মম ও চঞ্চল চৌধুরী

রয়েছে ছন্দে-সুরে একটি ব্যতিক্রমী আড্ডা। এতে দর্শকরা দেখবেন তারকাদের মুখে মুখে ছড়া আর ছন্দ- কতখানি তুলে আনে সময়ের দ্বন্দ্ব। আর এই ব্যতিক্রমী আড্ডায় অংশগ্রহণ করেছেন অভিনয়শিল্পী শহীদুজ্জামান সেলিম, চঞ্চল চৌধুরী, মম ও ঈশিতা। এর সংগীতায়োজন করেছেন নাভেদ পারভেজ।
সিয়াম-পূজা ও ফেরদৌস-পূর্ণিমা জুটি

এবারের নানা চমকের একটি হচ্ছে দর্শক প্রিয় চারজন অভিনয় তারকাকে নিয়ে একটি বিষয়ভিত্তিক গান ও নৃত্য। আর নৃত্যগীতে এই পর্বটিকে প্রাণবন্ত করেছেন চিত্রতারকা ফেরদৌস-পূর্ণিমা ও সিয়াম-পূজা জুটি। গানটিতে সংগীত পরিচালনা করেছেন মেহেদী। নৃত্য পরিচালনায় মামুন।
কণা ও ইমন

গত এক দশক ধরেই ঈদ ‘ইত্যাদি’তে তারকা শিল্পীদের অংশগ্রহণে নির্মিত হয় এই মিউজিক্যাল ড্রামা। এতে এবার অভিনয় করেছেন ইমন, নিরব, সাঈদ বাবু, নিপুণ, সারিকা ও কণ্ঠশিল্পী কণা। সংগীত পরিচালনা করেছেন ফরিদ আহমেদ ও নাভেদ পারভেজ।
মিলন, নাদিয়া ও মীর সাব্বির

ব্যতিক্রমী উপস্থাপনায় আরব্য উপন্যাসের একটি গল্পের আদলে তৈরি করা হয়েছে এবারের দলীয় সংগীত। এই পর্বে অংশগ্রহণ করেছেন অভিনয় তারকা মীর সাব্বির, আনিসুর রহমান মিলন ও নাদিয়া। সংগীতায়োজন করেছেন মেহেদী।
বিদেশিদের নাচ

ইত্যাদি’তে বিদেশি নাগরিকদের দিয়েও আমাদের লোকজ সংস্কৃতি, বিভিন্ন গ্রামীণ খেলাধুলা, ইতিহাস ও ঐতিহ্যকে নিয়মিতভাবে তুলে ধরা হচ্ছে। এবারও অর্ধশতাধিক বিদেশিদের দিয়ে এই পর্বটি তৈরি হয়েছে।
অপূর্ব ও মিথিলা

প্রতিবারই ‘ইত্যাদি’র দর্শক নির্বাচন প্রক্রিয়া থাকে ভিন্ন রকম। এবার বাছাই করা হয়েছে দর্শক পর্বের জন্য ৪ জনকে। এই পর্বে দর্শকদের সঙ্গে অংশগ্রহণ করেছেন অপূর্ব ও মিথিলা।
মামা-ভাগ্নে

ভাগ্নের গোমর ফাঁস করে দিয়েছেন মামা, কিন্তু কীভাবে? আর নাতি এবার নানির ওপর বেশ উত্তেজিত কিন্তু কী কারণে? এসবই জানা যাবে ঈদের পরদিন ‘ইত্যাদি’ প্রচার হলে।
নাতি-নানী

ইত্যাদি’র শিল্প নির্দেশনা করেছেন যথারীতি মুকিমূল আনোয়ার মুকিম। পরিচালকের সহকারী হিসাবে ছিলেন রানা সরকার ও মামুন মোহাম্মদ। রচনা, পরিচালনা ও উপস্থাপনা করেছেন হানিফ সংকেত। নির্মাণ করেছে ফাগুন অডিও ভিশন। স্পন্সর করেছে কেয়া কসমেটিকস লিমিটেড।মঞ্চে হানিফ সংকেত
‘ইত্যাদি’ একযোগে প্রচার হবে বিটিভি ও বিটিভি ওয়ার্ল্ডে ঈদের পরদিন রাত ১০টা ২০ মিনিটে।

মন্তব্য