| প্রচ্ছদ

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা

নির্ধারিত সময়ে না আসায় বগুড়ায় বিয়াম মডেল কেন্দ্রে পরীক্ষা দেওয়া হলো না কিছু পরীক্ষার্থীর

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ২০০ বার

নির্ধারিত সময়ে উপস্থিত হতে না পারায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় বগুড়ার বিয়াম মডেল স্কুল এন্ড কলেজ কেন্দ্রে পরীক্ষা দিতে পারে নি প্রায় ২০ জন পরীক্ষার্থী। শুক্রবার সকাল সাড়ে ১০ টায় ওই প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা শুরু হয়। কিন্তু নীতিমালা অনুযায়ী সকাল ১০ টার পর কেন্দ্রে পরীক্ষার্থীদের প্রবেশ বন্ধ করে দেওয়া হয়। এসময় পরীক্ষার্থীরা কেন্দ্রের বাহিরে দীর্ঘসময় দাঁড়িয়ে থাকলেও তাদেরকে ভিতরে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় নি।
 

এর আগে ১৭ মে থেকে চার দফায় পরীক্ষা আয়োজনের কথা জানানো হয়েছিল। ওই দিন জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা থাকায় এ পরীক্ষা পেছানো হয়। প্রাথমিক শিক্ষা অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, গত বছরের ১ আগস্ট থেকে ৩০ আগস্ট পর্যন্ত অনলাইনে ২৪ লাখের বেশি আবেদন জমা পড়েছে। ১৩ হাজার পদের বিপরীতে এসব আবেদন জমা পড়ে। নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন করা হয়েছে ডিজিটাল পদ্ধতিতে। এতে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষা নেয়া হবে। 

পরীক্ষার কেন্দ্রে প্রবেশ করতে না পারা শেরপুর থেকে আসা কানিজ ফাতেমা বলেন, 'রাস্তায় দুর্ঘটনার কারণে আমি নির্দিষ্ট সময়ের একটু পরে এসেছি। কিন্তু ভেতরে প্রবেশ করতে না পারায় পরীক্ষাটা দিতে পারলাম না।'


ধুনটের জাহিদ হাসান বলেন, 'আমার বাড়ি অনেক দূরে। পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে আসতে বলা হয়েছিলো। দুই এক মিনিট তো দেড়ি হতেই পারে। এ কারণে পরীক্ষা দিতে না দেওয়াটা আমাদের জন্য অনেক কষ্টের। পরিশ্রমটা বৃথা গেলো।'

 

এ ব্যাপারে বগুড়া বিয়াম মডেল স্কুল এন্ড কলেজের কেন্দ্র সচিব মোস্তাফিজুর রহমান 'পুণ্ড্রকথাকে ' জানান, যেসব পরীক্ষার্থী কেন্দ্রে প্রবেশ করতে পারেনি তারা নির্ধারিত সময়ের পরে এসেছে। প্রবেশ পত্রে পরীক্ষা শুরুর প্রায় ১ ঘন্টা আগে কেন্দ্রে উপস্থিত হবার কথা উল্লেখ আছে। তবে কর্তৃপক্ষের নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা সকাল ১০ টা পর্যন্ত পরীক্ষার হলে প্রবেশের সুযোগ দিয়েছি। এরপর যারা এসেছে তাদেরকে আর প্রবেশ করতে দেওয়া হয় নি।

মন্তব্য