| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় প্রাথমিক নিয়োগে মোবাইল ফোনে সলিউশন নেয়ায় ১৪জন গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার
পঠিত হয়েছে ১৭৪ বার

বগুড়ায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সহকারী শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষায় মোবাইল ফোনের মাধ্যমে সলিউশন আদান-প্রদান করায় এবং চাকরি দেয়ার নামে টাকা হাতিয়ে নেয়ার চেষ্টার অভিযোগে ১৪ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদের মধ্যে ১৩ জনকে শুক্রবার ও ১জনকে বৃহস্পতিবার রাতে আইন-শৃঙ্খলাবাহিনী গ্রেফতার করেছে।
শুক্রবার ছিল জেলার ১২টি উপজেলার ৬টি উপজেলার প্রার্থীদের পরীক্ষা। ৩৭টি কেন্দ্রে এই পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। গতকাল পরীক্ষা চলাকালে বিভিন্ন কেন্দ্রের আশপাশ থেকে পুলিশ ১৩ জনকে গ্রেফতার করে। এরা হলো- রাজু,সালাম,ইউনুস আলী,ইসমাইল হোসেন, মেহেদী হাসান,ওবায়দুর রহমান,হারুন,সিজু মিয়া,আহসান,আলমগীর কবির,সুমন,হাসনাতুন জাহান ও সাইফুল ইসলাম। এদের বিরুদ্ধে অভিযোগ এরা পরীক্ষা কেন্দ্রের বাইরে থেকে সুকৌশলে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে প্রশ্নের সলিউশন পরীক্ষার্থীদের সঙ্গে আদান প্রদান করছিল। এছাড়াও বৃহস্পতিবার রাতে র‌্যাব সদস্যরা শহরের লতিফপুর কলোনি এলাকা থেকে আলমগীর হোসেন নামের একজনকে ১০ লাখ টাকার চেকসহ গ্রেফতার করে। সে লতিফপুর এলাকার আবেদ আলীর ছেলে।
গ্রেফতারকৃত আলমগীর এক প্রার্থীকে সহকারী শিক্ষক পদে চাকরি দেয়ার নামে ১০ লাখ টাকা চুক্তি করেন এবং প্রার্থীর কাছ থেকে ৫ লাখ টাকা করে ১০ লাখ টাকার দু’টি চেক নিয়ে রাখেন। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব সদস্যরা তাকে গ্রেফতার করে। শুক্রবার গ্রেফতারকৃত আলমগীর হোসেনকে সদর থানায় হস্তান্তর করে তার বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়।
বগুড়া সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম বদিউজ্জামান পরীক্ষা কেন্দ্রের আশপাশ থেকে ১৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার বেগম তহমিনা খাতুন জানান ‘শুক্রবার জেলার ১২ উপজেলার মধ্যে ছয় উপজেলার ৩১ হাজার ৯৯৭ জন পরীক্ষার্থীর লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। আগামী ২৮ জুন অপর ছয় উপজেলার পরীক্ষার্থীদের লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। 

মন্তব্য