| প্রচ্ছদ

গণপিটুনি দিয়ে মুসলিম ক্যাব চালককে বলানো হলো ‘জয় শ্রীরাম’

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬৪ বার। প্রকাশ: ২৮ জুন ২০১৯ ।

ভারতের সংখ্যালঘু মুসলিমদের ওপর হিন্দুত্ববাদীদের নিপীড়নের লাগাম টেনে ধরা যাচ্ছে না। এক মুসলিমকে যুবককে পিটিয়ে হত্যার ঘটনার রেশ না কাটতেই আরেক মুসলিম ক্যাব চালককে গণপিটুনি দিয়ে বলানো হলো- ‘জয় শ্রীরাম’।

এনডিটিভি জানায়, মহারাষ্ট্রের এই ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

পুলিশের ডেপুটি কমিশনার এস এস বারসে বলেন, এ ঘটনায় ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এবং ডাকাতির অভিযোগে ভারতীয় প্যানেল কোডের ২৯৫ ও ৩৯২ ধারায় একটি মামলা দায়ের করেছে মুম্বাই পুলিশ।

মামলার এজাহারে বলা হয়, মুসলিম ক্যাব চালক ফয়জল শনিবার রাতে কয়েকজন যাত্রী নিয়ে জেলার দিভা শহরে যান। ফেরার পথে চার-পাঁচজন লোকের সঙ্গে তার বাগ্‌বিতণ্ডা হয়।

একপর্যায়ে তারা ফয়জলকে মারতে শুরু করে। যখন তারা বুঝতে পারে তিনি মুসলিম, তখন তাকে ‘জয় শ্রীরাম’ বলতে বাধ্য করে।

পুলিশের আরেকটি সূত্র জানায়, এ ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যজনকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে। তবে আটকদের নাম প্রকাশ করেনি পুলিশ।

কয়েক দিন আগে ঝাড়খণ্ডে চোর অপবাদ দিয়ে তাবরেজ আনসারি নামে এক মুসলিম যুবককে ১৮ ঘণ্টা ধরে নির্যাতন করে উগ্রবাদী হিন্দুরা হত্যা করে। তার মুখ দিয়ে জোর করে বলানো হয় ‘জয় শ্রীরাম’ ও ‘জয় হনুমান’ স্লোগান।

জানা গেছে, ১৫ বছর আগে এভাবেই মৃত্যু হয়েছিল তাবরেজের বাবা মাসকুর আলমের। চোর অপবাদ দিয়ে‌ তাকেও পিটিয়ে মেরেছিল উন্মত্ত হিন্দুরা।

মন্তব্য