| প্রচ্ছদ

আ.লীগের সদস্য করার আগে নেওয়া হবে গোয়েন্দা তথ্য: কাদের

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫৮ বার

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী বলেছেন, ‘নির্বাচনে যারা নৌকার পক্ষে কাজ করেছে, তাদের দলের সদস্য করা হবে। তবে এদের মধ্যে কেউ স্বাধীনতাবিরোধী ও সাম্প্রদায়িক দৃষ্টিভঙ্গি সম্পন্ন কিনা তা আমরা দলীয়ভাবে ও গোয়েন্দার মাধ্যমে খতিয়ে দেখবো।”

সোমবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সভাকক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, “স্বাধীনতাবিরোধী ও সাম্প্রদায়িক দৃষ্টিভঙ্গি সম্পন্ন কাউকে আমাদের দলীয় ও সরকারি কর্মকাণ্ডে কোথাও সমর্থন করছি না। এ ক্ষেত্রে আমাদের আগের সিদ্ধান্ত বহাল আছে। ১ জুলাই থেকে ২০ জুলাই পর্যন্ত দলের সদস্য বই সংগ্রহ চলবে। ২১ জুলাই থেকে চলবে সদস্য সংগ্রহ অভিযান।”

এ সময় মন্ত্রিসভায় কোনও রদবদল হচ্ছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, “মন্ত্রিসভা বাড়ানোর বিষয়টি আমি নিজে এখনও জানি না। যদিও এটি প্রধানমন্ত্রীর এখতিয়ার। তবে মন্ত্রিপরিষদের কিছু পদ খালি আছে। প্রধানমন্ত্রী চীন থেকে ফিরে আসলে জানা যাবে।”

ওবায়দুল কাদের বলেন, “রিফাত হত্যায় প্রধানমন্ত্রী দোষীদের গ্রেপ্তারে নির্দেশ দিয়েছেন। সরকার প্রধানের এ ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি প্রমাণিত হয়েছে। এ পর্যন্ত ৯ জনকে গ্রেপ্তার হয়েছে। বাকিরাও গ্রেপ্তার হবে।”

দেশ জঙ্গিমুক্ত হয়েছে, এতে সরকার আশ্বস্ত কিনা সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, “শ্রীলঙ্কার ঘটনার পর বিশ্বের কেউই বলবে না যে তারা স্বস্তিতে আছে। নরওয়ে, নিউজিল্যান্ডেও জঙ্গি হামলার ঘটনা ঘটছে। তবে আমরা আতঙ্কিত নই, সতর্কতা অবলম্বন করছি।”

মন্তব্য