| প্রচ্ছদ

ছয় কোটি গাছ লাগিয়ে ‘ফণি’কে জবাব ওডিশার!

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬৪ বার। প্রকাশ: ০৫ জুলাই ২০১৯ ।

মে মাসের শুরুতে ঘূর্ণিঝড় ‘ফণি’র হানায় তছনছ হয়ে গিয়েছিল ভারতের ওডিশা রাজ্যের উপকূল। ওই ঝড়ে ২২ লাখ গাছ উপড়ে পড়েছিল। আর সেই ক্ষতি পুষিয়ে নিতে ছয় কোটি গাছ লাগানোর উদ্যোগ নিয়েছে ওডিশা সরকার। খবর দেশ রুপান্তর 

ভারতীয় গণমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিন জানায়, ‘ফণি’র আঘাতে প্রকৃতির যে অপূরণীয় ক্ষতি হয়েছে, তার বিরূপ প্রভাব ঠেকাতে এই উদ্যোগ নিয়েছে সরকার।

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ‘ফণি’র আঘাতে ওডিশাজুড়ে কমপক্ষে ২২ লাখ গাছ উপড়ে পড়ে। এর মধ্যে ১৪ লাখই নারিকেল গাছ। প্রায় ৮ হাজার হেক্টর নারিকেল বাগান নষ্ট হয়ে গিয়েছে ঘূর্ণিঝড়ের প্রকোপে। এর জেরে প্রকৃতির ভারসাম্য মারাত্মকভাবে প্রভাবিত হতে।

রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘ফণি’র কবলে যে ২২ লাখ গাছ নষ্ট হয়েছে, তার পরিবর্তে সরকার অন্তত ছয় কোটি চারাগাছ রোপণের উদ্যোগ নিয়েছে।

শুধু তাই নয়, আরও চার কোটি চারাগাছ সরকার বিলিয়ে দেবে সাধারণ নাগরিকের মধ্যে। তাদের উৎসাহিত করা হবে বৃক্ষরোপণে।

মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক বলেন, ওডিশার বনদপ্তর ছয় কোটি গাছ লাগানোর উদ্যোগ নিয়েছে। এই বর্ষার মধ্যেই আরও চার কোটি চারাগাছ দেওয়া হবে বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এবং সাধারণ মানুষকে।

তিন বড় শহর- ভুবনেশ্বর, পুরি এবং কটকেই লাগানো হবে পাঁচ লাখ গাছ। আর যে এলাকাগুলো ‘ফণি’তে সবচেয়ে বেশি বিধ্বস্ত, সেই এলাকাগুলোতে লাগানো হবে ৮০ লাখ গাছ।

প্রত্যেক স্কুলছাত্রকে অনুরোধ করা হয়েছে, অন্তত একটি করে চারাগাছ লাগাতে এবং তার যত্ন নিতে।

মন্তব্য