| প্রচ্ছদ

রিফাত হত্যা: জিজ্ঞাসাবাদের তালিকায় মিন্নি

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ১৫৬ বার

বরগুনায় রিফাত শরীফ হত্যাকান্ডের ঘটনায় স্ত্রী আয়েশা আক্তার মিন্নিকে-ও  জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে। কলেজের ভেতরে ও বাইরে রিফাত শরীফ, তার স্ত্রী  মিন্নি ও আসামিদের কার কী ভূমিকা ছিল মূলত সে বিষয়ে বিস্তারিত জানতে মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদের প্রয়োজন হতে পারে।

রবিবার বরগুনার তদন্ত সংশ্লিষ্ট একাধিক কর্মকর্তা  এসব তথ্য জানিয়েছেন।

বরগুনা থানার ওসি আবির মোহাম্মদ হোসেন  বলেন, রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের এজাহার নামীয় ছয় আসামি এখনও পলাতক রয়েছে, এজাহারের বাইরে আরো অনেকের তথ্য পাওয়া যাচ্ছে, যাদের সবাইকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

মিন্নিকে জিজ্ঞাসাবাদ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, তার(মিন্নি) বিষয়ে মাননীয় পুলিশ সুপার সজাগ রয়েছেন। তিনিই এবিষয়ে বলার এখতিয়ার রাখেন।

পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন দেশ রূপান্তরকে বলেন, রিফাত শরীফ হত্যাকাণ্ডের সুষ্ঠু তদন্তের স্বার্থে পুলিশ যে কাউকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে পারে।

২৬ জুন স্ত্রীর সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। তার স্ত্রী আয়শা আক্তার মিন্নি হামলাকারীদের সঙ্গে লড়াই করেও তার স্বামীকে বাঁচাতে পারেননি। গুরুতর আহত রিফাতকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তির পর বিকেলে চিকিৎসাধীন মারা যান।

এ ঘটনায় ২৭ জুন নয়ন বন্ড, রিফাত, রিশান ফরাজীসহ ১২জনের হত্যা মামলা দায়ের করেন রিফাত শরীফের বাবা মো. আ. হালিম দুলাল শরীফ।

হত্যা মামলার তদন্ত করতে গিয়ে বরগুনা থানা পুলিশ এজাহারনামীয় পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

প্রধান আসামি সাব্বির আহমেদ নয়ন ওরফে নয়ন বন্ড পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়।

মন্তব্য