| প্রচ্ছদ

গার্মেন্টস কর্মী রুপালি বেগমের সংবাদ সম্মেলন

বগুড়ার শেরপুরে ধর্ষণ মামলা তুলে নিতে বাদিকে প্রাণনাশের হুমকি

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ৪৯ বার

বগুড়ার শেরপুরে বিয়ের প্রলোভনে এক নারী গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলা তুলে নিতে বাদিকে হুমকি-ধামকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে। অন্যথায় বাদি ও তার পরিবারের সদস্যদের প্রাণনাশ করা হবে বলেও ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এ অবস্থায় চরম নিরাপত্তাহীনতায় দিনাতিপাত করছেন ভুক্তভোগী ওই পরিবারটি। সোমবার বিকালে শহরের স্থানীয় বাস্ট্যান্ডে শেরপুর প্রেসক্লাব কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেন মামলার বাদি রুপালি বেগম। তিনি উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়নের আমিনপুর আদর্শ গ্রামে মৃত বাহার উদ্দীনের মেয়ে।

সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, বিগত তিন বছর আগে প্রথম স্বামীর সঙ্গে তার ছাড়াছাড়ি হয়। এরপর তিনি গার্মেন্টেসে চাকরি নেন। একপর্যায়ে একই গ্রামের হবিবর রহমান তালুকদারের ছেলে মাহবুবব তালুকদার তাকে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। একইসঙ্গে লম্পট মাহবুব এই সূত্রধরে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়েন। এমনকি বিয়ের প্রলোভন দিয়ে চলতি বছরের ১৮জানুয়ারি রাতে জেলার সোনাতলা উপজেলার হুয়াকুয়া গ্রামের বন্ধুর বাড়িতে নিয়ে রাতভর ধর্ষণ করে বলে আভিযোগ তার। এছাড়া একাধিকবার বিভিন্ন স্থানে নিয়ে গিয়েও তাকে ধর্ষণ করা হয়।

কিন্তু বিয়ে করতে চাপ দিলে তিনি নানা তালবাহানা করতে থাকেন। একপর্যায়ে আদালতের দ্বাড়স্থ হন তিনি। জেলার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনাল-১ একটি মামলা দায়ের করেন। যা বর্তমানে বিচারাধীন রয়েছে।

সম্মেলনে ভুক্তভোগী গার্মেন্টস কর্মী রুপালি বেগম অভিযোগ করে বলেন, বেশকিছুদিন ধরে লম্পট মাহবুব ও তার ভাই মাসুদ রানা মামলা তুলে নিতে অব্যাহতভাবে নানা হুমকি-ধামকি দিচ্ছেন। এমনকি দ্রুত এই মামলাটি প্রত্যাহার করা না হলে তাকেসহ পরিবারের অন্য সদস্যদের প্রাণনাশ করা হবে বলেও ঘোষণা দিয়েছেন তারা। মাসুদ স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তি। নিজেকে ক্ষমতাধর ব্যক্তি মনে করেন। এছাড়া তার নানা অপকর্মের বিরুদ্ধে কেউ কথা বলতেও সাহস পায় না। তাই অনেকটা নির্বিঘ্নে বিভিন্ন অপকর্ম চালিয়ে যাচ্ছেন তিনি। এবার তার বিরুদ্ধে উঠেপড়ে লেগেছে। তাদের ভয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতার মধ্যে পরিবার নিয়ে দিনাতিপাত করছেন বলে জানান ভুক্তভোগী রুপালি বেগম।তাই জীবন ও পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে এবং আসামিদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে প্রশাসনের প্রতি জোর দাবি জানান ওই গার্মেন্টস কর্মী।

অভিযুক্ত মাহবুব তালুকদারের বক্তব্য জানতে তার সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও তার বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

তবে তার ভাই মাসুদ রানা তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, 'এসব বিষয়ে কোন কিছুই জানেন না তিনি। উক্ত ঘটনার সঙ্গে তাকে জড়ানোর ষড়যন্ত্র চলছে বলেও দাবি করেন তিনি।'

মন্তব্য