| প্রচ্ছদ

ট্রাম্পের কাছে সৌদির প্রথম নারী রাষ্ট্রদূতের পরিচয়পত্র পেশ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬০ বার। প্রকাশ: ০৯ জুলাই ২০১৯ ।

সৌদি আরবের প্রথম নারী রাষ্ট্রদূত হিসেবে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে পরিচয়পত্র দিয়েছেন প্রিন্সেস রিমা বিনতে বন্দর বিন সুলতান। খবর আল আরাবিয়ার। মঙ্গলবার টুইটারে দেয়া এক পোস্টে প্রিন্সেস রিমা জানান, ওয়াশিংটনে সৌদি আরবের রাষ্ট্রদূত হিসেবে আমি যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্টকে আমার পরিচয়পত্র হস্তান্তর করেছি। আমি দুই পবিত্র মসজিদের খাদেম এবং সৌদি যুবরাজের পক্ষ থেকে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এবং নাগরিকদের শুভকামনা জানাচ্ছি।

সৌদি আরবের প্রথম এ নারী রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, আমি দেশ ও জাতির স্বার্থ এবং দুই দেশের মধ্যকার সম্পর্ক আরও দৃঢ় করার আপ্রাণ চেষ্টা করব।

এর আগে ওয়াশিংটনে সৌদি দূতাবাসের মুখপাত্র ফাহাদ নাযির বৃহস্পতিবার জানিয়েছিলেন, রাষ্ট্রদূত হিসেবে প্রিন্সেস রিমা বিনতে বন্দর বিন সুলতান মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে তার পরিচয়পত্র উপস্থাপন করেছেন।

একই দিন প্রিন্সেস রিমা টুইটবার্তায় বলেন, আজ থেকে আমি যুক্তরাষ্ট্রে আমি রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ শুরু করেছি। আমি এবং আমার সঙ্গীরা যেন দেশের সেবায় কাজ করতে পারি মহান আল্লাহর কাছে আমার এই প্রার্থনা রইলো।

১৯৪৫ সাল থেকে এ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে ১১তম সৌদি রাষ্ট্রদূত হিসেবে কাজ করবেন প্রিন্সেস রিমা। নারী রাষ্ট্রদূত হিসেবে তাকেই প্রথম নিয়োগ দিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

গত সপ্তাহে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যে সৌদি আরবের নতুন দুই রাষ্ট্রদূত নিজেদের দায়িত্ব গ্রহণ করেছেন।

ইয়েমেন যুদ্ধ ও সাংবাদিক জামাল খাশোগি হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় পশ্চিমা মিত্রদের সঙ্গে উত্তেজনার মধ্যে বেশ কয়েক মাসের জন্য পদদুটি খালি থাকার পর তাদের দায়িত্ব গ্রহণের মধ্য দিয়ে এবার তা পূর্ণ হল।

প্রিন্সেস রিমার বাবাও দীর্ঘদিন ওয়াশিংটনে সৌদি দূতের দায়িত্ব পালন করেছেন।

বাবার সঙ্গে বহু বছর ওয়াশিংটনে বসবাস করেছেন প্রিন্স রিমা। তিনি জর্জ ওয়াশিংটন বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন।

মন্তব্য