| প্রচ্ছদ

দ্রুত গতির বাউন্সার কেড়ে নিল ভারতীয় ক্রিকেটারের প্রাণ

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৬৮ বার

এসময়ের সবচেয়ে জনপ্রিয় খেলা ক্রিকেট নিয়ে নানা বর্ণিল ইতিহাস রচিত হয়েছে। তবে সে ইতিহাসকে রক্তাক্ত করেছে ভয়ঙ্কর কিছু ঘটনা।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মীরে ঘটল এমনই এক ঘটনা।

এদিন দ্রুত গতির বাউন্সার ঠেকাতে দিয়ে প্রাণ গেল এক ক্রিকেটারের। তার নাম জাহাঙ্গীর আহমদ ওয়ার। জম্মু-কাশ্মীর সরকারের যুব ও ক্রীড়া দফতরের এক ক্রিকেট টুর্নামেন্টে খেলার সময় বলের আঘাতে মৃত্যু হয় তার। খবর এনডিটিভির

স্থানীয় ও প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে এনডিটিভি জানিয়েছে, জেলা স্তরের টুর্নামেন্টে ম্যাচ চলছিল বারামুল্লা ও বুদগামের মধ্যে। বারামুল্লার হয়ে খেলছিলেন ১৮ বছর বয়সী বাঁহাতি ওপেনার জাহাঙ্গীর। ব্যাটিংয়ের সময় একটি বাউন্সার হুক করতে গেলে বল তার ঘাড়ে আঘাত হানে। সঙ্গে সঙ্গে জাহাঙ্গীর মাটিতে লুটিয়ে পড়ে জ্ঞান হারান।

এ অবস্থায় খেলা বন্ধ রেখে তাকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন।

চিকিৎসকরা জানান, বলটি এত দ্রুত গতিতে জাহাঙ্গীরের ঘাড়ের সংবেদনশীল অংশে আঘাত হানে যে মাঠেই তার মৃত্যু হয়েছে।

জাহাঙ্গীরের এমন অকাল মৃত্যুতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। তার এমন মৃত্যুতে গোটা জম্মু-কাশ্মীরের যুব ও ক্রীড়া দফতর স্তব্ধ।

এই ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে ক্রীড়া দফতরের ফিজিও সালেম-উর-রহমান এনডিটিভিকে বলেন, ‘এটি অত্যন্ত দুঃখজনক ঘটনা। বলটি তার হেলমেটে লাগলে হয়তো তেমন কিছুই হতো না। কিন্তু হুক শট খেলতে গিয়ে ঘাড়ে আঘাত পায় জাহাঙ্গীর। মাঠ থেকে হাসপাতালের দূরত্ব মাত্র ১০ মিনিটের। আমাদের এখানে নিউরোসার্জনও আছেন। তবুও শেষ রক্ষা হয়নি। হাসপাতালের আসার আগেই তার মৃত্যু হয়।’

একাদশ শ্রেণিতে পড়তেন জাহাঙ্গীর। তিনি উত্তর কাশ্মীরের গুশবার্গ গ্রামের বাসিন্দা ছিলেন বলে জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো।

প্রসঙ্গত, ক্রিকেটের মাঠে এমন মৃত্যুর ঘটনা এটাই প্রথম নয়। এর আগেও এমন কয়েকটি ঘটনা ক্রিকেটকে করেছে কলঙ্কিত। ২০১৪ সালে শেফিল্ড শিল্ডে খেলার সময় ঘাতক বাউন্সার অস্ট্রেলিয়ান ওপেনার ফিল হিউজের জীবন কেড়ে নিয়েছিল।

মন্তব্য