| প্রচ্ছদ

ভূত সেজে ঘরে ঢুকে গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা!

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫৬ বার। প্রকাশ: ১৫ জুলাই ২০১৯ ।

ভূত সেজে প্রতিবেশী গৃহবধূকে ধর্ষণ করতে গিয়েছিল এক যুবক। কিন্তু পরিচয় ফাঁস হয়ে গেলে শেষমেশ ধরা পড়ে পিটুনি খেল ওই যুবক। পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব বর্ধমানে এ ঘটনা ঘটে। 

জি নিউজ জানায়, পিটুনি খেলেও ওই ভূত এখন পলাতক। এ ঘটনায় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। ওই তরুণকে ধরতে মাঠে নেমেছে পুলিশ।

আক্রান্ত গৃহবধূর অভিযোগ, মাসখানেক ধরে তাদের বাড়িতে ভূতের উপদ্রব শুরু হয়। কখনো ঢিল পড়তে থাকে। কখনো বাসনের আওয়াজ পেতে থাকেন পরিবারের লোকেরা। রবিবার রাতে একেবারে ঘরে ঢুকে পড়ে ভূত। জড়িয়ে ধরে গৃহবধূকে। ব্লাউজ ছিঁড়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

তবে দমে না-গিয়ে চিত্কার করে পরিবারের অন্যান্যদের জাগিয়ে তোলেন তিনি। এতে হাতেনাতে ধরা পড়ে ভূত। দেখা যায়, এ ভূত আসলে প্রতিবেশী যুবক সুরজ শেখ।

এক পর্যায়ে অন্যান্য প্রতিবেশীরা জড়ো হয়ে সুরজকে পিটুনি দেয়। এরই মধ্যে সুরজের পরিবারের লোকেরা এসে তাকে নিয়ে চলে যায়।

ওই গৃহবধূ বলেন, “প্রতিবেশী যুবক সুরজ শেখ মুখে পাউডার ও গায়ে কালি মেখে ভূত সেজে এসেছিল। তবে আমি হাল ছাড়িনি। ধরে জাপটে ধরি তাকে। এতে তার আসল রূপ বেরিয়ে আসে।”

এ দিকে এ ঘটনায় স্থানীয় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে গৃহবধূর পরিবার। অভিযোগের ভিত্তিতে সুরজ শেখের মাকে আটক করেছে পুলিশ। সুরজ শেখকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চালাচ্ছে তারা।

মন্তব্য