| প্রচ্ছদ

তিন ভাইবোনকে একই কায়দায় গলা কেটে নরবলি!

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৪৮ বার। প্রকাশ: ১৬ জুলাই ২০১৯ ।

নরবলি দেওয়ার প্রবণতা ভারতে নতুন করে ছড়িয়ে পড়েছে। পরিবার কর্তৃক শিশুকে নরবলি দেওয়ার চেষ্টার পর সম্প্রতি তান্ত্রিকের কক্ষে মিলে যুবকের লাশ। এবার শিবমন্দির চত্বরে মিলেছে গলাকাটা তিন ভাইবোনের মরদেহ। খবর দেশ রুপান্তর

সোমবার অন্ধ্রপ্রদেশের অনন্তপুরের একটি শিবমন্দির চত্বর থেকে দুই নারীসহ তিনজনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এই সময় জানায়, তিনজনকে একই কাদায় গলা কেটে হত্যা করা হয়। কিন্তু, কেন এই খুন তা নিয়ে ধন্দে রয়েছে পুলিশ।

অবশ্য ঘটনার তদন্তকারী পুলিশ ইন্সপেক্টরের দৃঢ় ধারণা, অন্ধবিশ্বাসের বলি ওই তিনজন। কারণ, খুনের পর শিবলিঙ্গের গায়ে ওই তিনজনের রক্ত ছিটানো হয়েছে।

খুন হওয়া তিনজনকে পুলিশ শনাক্ত করতে সক্ষম হয়েছে। তারা হলেন- শিবরামি রেড্ডি (৭৫), হনুমাম্মা (৭০) ও সত্যলক্ষ্মী (৭১)। সম্পর্কে তারা ভাইবোন।

অনন্তপুরের পুলিশ সুপার বি সত্যবাবু জানান, ওই তিনজনকে গলা কেটে খুনের পর সেই রক্ত ঢেলে শিবের পুজো করা হয়েছে।

তবে এই তিন খুনের পেছনে অন্য কোনো রহস্য লুকিয়ে রয়েছে কিনা সেটাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

কারণ, তিনজনেই একই পরিবারের সদস্য। ফলে, সম্পত্তিগত কারণে বা পারিবারিক শত্রুতার জেরে খুন করে পুলিশকে বিভ্রান্ত করতে শিবলিঙ্গে রক্ত ঢালা হয়েছে কিনা তদন্তে সেটাও মাথায় রাখা হচ্ছে।

মন্তব্য