| প্রচ্ছদ

যে কারণে শ্বশুরবাড়ি ছাড়লেন রানি মুখার্জি

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫৩ বার। প্রকাশ: ২০ জুলাই ২০১৯ ।

ভারতের মুম্বাইয়ে অবস্থিত সবচেয়ে অভিজাত এলাকা জুহুতে অবস্থিত শ্বশুরবাড়ির বিশাল বাংলো ছাড়লেন রানি মুখার্জি।

প্রয়াত চলচ্চিত্র পরিচালক যশ চোপড়ার সঙ্গে এই বাড়িতে স্বামী আদিত্য চোপড়া ও কন্যা আদিরাকে নিয়ে বিয়ের পর থেকেই বাস করছিলেন বলিউড এই অভিনেত্রী ।

এরপর যশ চোপড়ার মৃত্যুর পর শাশুড়ি পামেলা চোপড়া ও দেবর উদয় চোপড়াকে নিয়ে একই বাড়িতে থাকতেন এই দম্পতি। তবে কয়েকদিন আগে শ্বশুরবাড়ি ছেড়ে আদিত্য চোপড়াকে নিয়ে নতুন বাড়িতে উঠেছেন রানি।

জানা গেছে, মেয়ে আদিরার জন্মের পরই নতুন বাড়িতে উঠার কথা থাকলে্ও তখন যা্ওয়া হয়নি। তবে সম্প্রতি সেই বাড়িতেই থাকছেন এই দম্পতি।

তবে হঠাৎ কেন তারা এই বাড়ি বদলের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এর কারণ জানতে গিয়ে কিছু বিষয় জানা গেল।

তবে শাশুড়ি বা দেবরের সঙ্গে সম্পর্কের কোনো অবনতি হয়নি। কারণ মেয়েকে লাইমলাইট থেকে দূরে রাখতে চান তারা। চোপড়াদের বাংলোতেই যশরাজের অফিস। অফিসে সারাদিন অনেক লোকের আনাগোনা। আর ক্যামেরার ঝলকানি তো রয়েছেই। এই পরিবেশে মেয়েকে বড় করতে চান না রানি ও আদিত্য। তাই নতুন বাড়িতে উঠা।

তবে নিজেদের বাংলোর কাছেই বাড়িটি কেনা হয়েছে। বাড়ি কাছে নেওয়া হয়েছে, যাতে আদিত্যরও সুবিধা হয়। আর পামেলাও ইচ্ছে করলেই নাতনিকে গিয়ে দেখে আসতে পারেন।

২০১৪ সালে ইতালিতে বিয়ে হয় আদিত্য চোপড়া ও রানি মুখার্জির। পরের বছরই তাদের মেয়ে আদিরার জন্ম। তার বয়স ৪ বছর হয়ে গেলেও এখনো পাপারাজ্জির হাত থেকে বেশ দূরেই তাকে রেখেছেন রানি।

সূত্র: ডেইলি হান্ট

মন্তব্য