| প্রচ্ছদ

ধুনটে এমপির উদ্যোগে অবশেষে পানিবন্দি চরে পৌছালো ত্রাণ

ধুনট (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ২৭৮ বার

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় অবশেষে যমুনা নদীর বৈশাখী চরের পানিবন্দি পরিবার গুলোর কাছে ত্রাণ সামগ্রী পৌছে দেওয়া হয়েছে। শনিবার দুপুরে চরের পানিবন্দি পরিবার গুলোর হাতে ত্রাণ সামগ্রী তুলে দেন সংসদ সদস্য বীরমুক্তিযোদ্ধা  হাবিবর রহমান। 

জানা যায়,  শনিবার (থেকে ধুনট উপজেলার ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়নের বৈশাখী, রাধানগর ও বথুয়ারভিটা চরসহ প্রায় ১৩টি গ্রামের বাসিন্দারা পানিবন্দি হয়ে পড়ে। পানিবন্দি পরিবার গুলোর জন্য সরকারি ভাবে দু’দফায় ত্রাণ সামগ্রী বরাদ্দ হয়। এরমধ্যে গত মঙ্গলবার ৫০০ পরিবারের মাঝে শুকনো খাবার এবং গত বুধবার ২ হাজার পরিবারের মাঝে ত্রাণের চাল বিতরণ করা হয়। বিতরণকৃত তালিকায় ছিল যমুনা নদীর বৈশাখী চরের প্রায় ৩০০ পরিবারের নাম। বন্যার পানিতে উত্তাল যমুনা নৌকায় পেরিয়ে ত্রাণ নিতে আসেনি বৈশাখী চরের বাসিন্দারা। চরবাসীর দাবী ছিলো ত্রাণ সামগ্রী পৌছে দেওয়ার। শুক্রবার পর্যন্ত ত্রাণ সামগ্রী বৈশাখী চরে না পৌছায় সংসদ সদস্য হাবিবর রহমান ত্রাণ সামগ্রী চরে পৌছে দেওয়ার উদ্যোগ নেন। 

শনিবার দুপুরের বৈশাখী চরের পানিবন্দি পরিবার গুলোর মাঝে ত্রাণের চাল ও শুকনো খাবার বিতরণ করেন এমপি হাবিবর রহমান। এসময় তিনি বানভাসী মানুষের খোঁজ খবর নিয়ে বলেন, ধর্য্য সাহিকতার সাথে বন্যা মোকাবেলা করুন। বঙ্গবন্ধু কন্যার নেতৃত্বে আপনাদের সকল সমস্যা পর্যায়ক্রমে সরকার সমাধান করবেন।

ত্রাণ বিতরণকালে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হাই খোকন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার রাজিয়া সুলতানা, বগুড়া জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান নাজনীন নাহার, ভান্ডারবাড়ী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতিকুল করিম আপেল, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুল আলীম, ধুনট উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি গোলাম সোবহান, শফিকুল ইসলাম, ইঞ্জিনিয়ার মুহাম্মদ আসিফ ইকবাল সনি, যুগ্ম সম্পাদক মহিসন আলম, সাংগঠনিক সম্পাদক ভিপি সাইফুল ইসলামসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। 

মন্তব্য