| প্রচ্ছদ

পিটিয়ে হত্যার আসামি হৃদয় ৫ দিনের রিমান্ডে

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৫০ বার। প্রকাশ: ২৪ জুলাই ২০১৯ ।

রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় ‘ছেলেধরা’ সন্দেহে পিটিয়ে তাসলিমা বেগম রেনুকে হত্যার মামলার প্রধান আসামি ইব্রাহিম ওরফে হৃদয় হোসেন মোল্লাকে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। 

বুধবার আদালতে হাজির করে তার বিরুদ্ধে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হলে শুনানি শেষে ঢাকা মহানগর হাকিম মোহাম্মদ জসিম হৃদয়ের ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। খবর সমকাল অনলাইন 

আদালতে রিমান্ড আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পরিদর্শক আবদুর রাজ্জাক।  এসময় হৃদয়ের পক্ষে কোনও আইনজীবী ছিলেন না।

মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে নারায়ণগঞ্জেের ভুলতা থেকে আসামি হৃদয়কে গ্রেফতার করে পুলিশ।

২০ জুলাই সকালে ঢাকার উত্তর পূর্ব বাড্ডা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে রেনুকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। মেয়ে তুবাকে ভর্তির জন্য ওই স্কুলে খোঁজ নিতে যান তিনি। এসময় তার কথাবার্তায় সন্দেহ হলে গুজবেই লোকজন জড়ো হয়ে ছেলেধরা বলে গণপিটুনি দিলে মারা যান রেনু।

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার উত্তর সোনাপুর গ্রামে রেনুর বাবার বাড়িতে রোববার রাতে তাকে দাফন করা হয়। তুবা এখন তার খালাদের সঙ্গে রয়েছে। রেনুকে হত্যার ঘটনায় শনিবার রাতে অজ্ঞাত ৪০০-৫০০ জনের বিরুদ্ধে বাড্ডা থানায় একটি হত্যা মামলা করেন নিহতের ভাগিনা সৈয়দ নাসির উদ্দিন টিটু।

হত্যাকারীদের বিচারের দাবি জানিয়ে রাস্তায় নেমেছে নিহত রেনুর শিশুকন্যা তুবা। হত্যাকারীদের গ্রেফতার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ হয়েছে। গত কয়েকদিন ধরে বিষয়টি নিয়ে ফেসবুকেও চলছে ক্ষোভ।

মন্তব্য