| প্রচ্ছদ

বগুড়ায় ছেলে ধরা গুজবে জামাইকে ফাঁসাতে গিয়ে শ্বশুর- শাশুড়িসহ স্ত্রী গ্রেফতার

সারিয়াকান্দি (বগুড়া) প্রতিনিধি
পঠিত হয়েছে ২৫০ বার

বগুড়ার সারিয়াকান্দিতে ছেলেধরা বলে জামাইকে ফাঁসাতে গিয়ে গুজব ছড়ানো শ্বশুর-শাশুড়িসহ স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার উপজেলার যুগল মন্দিরের সামনে জামাই রিবুন মন্ডল তার সন্তানকে কোলে নেওয়ার সময় ওই ঘটনা ঘটে।  

গ্রেফতারকৃতরা হলো- চরগোসাইবাড়ী গ্রামের মৃত সাহেব আলীর ছেলে ভিক্ষুক জন্মান্ধ সিপার, তার স্ত্রী বিউটি এবং মেয়ে শিরিন। 

পুলিশ জানায়, সদর ইউনিয়নের চরগোসাইবাড়ী গ্রামের ভিক্ষুক সিপারের মেয়ে শিরিনের সাথে গনকপাড়া গ্রামের রিবুন মন্ডলের বিবাহ হয়। তাদের একটি ছেলে রয়েছে। স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বনিবনা না হওয়ায় শিরিন বাবার বাড়িতেই থাকে। রিবুন তার স্ত্রী ও শ্বশুর-শাশুড়ির ডাকে মঙ্গলবার তার নিজবাড়ী থেকে সারিয়াকান্দিতে আসে। সারিয়াকান্দি সদরের যুগল মন্দিরের পাশে তারা একত্রিত হয়। রিবুন তার সন্তানকে কোলে নেয়ার সময় শ্বশুর-শাশুড়ী এবং স্ত্রী তাকে ছেলে ধরা ছেলে ধরা বলে চিৎকার শুরু করে। অবস্থা বেগতিক দেখে সেখান থেকে দৌড়ে পালিয়ে যায়।

সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং সিপার, তার স্ত্রী বিউটি ও মেয়ে শিরিনের কাছে ঘটনা জানতে চায়। ছেলে ধরার ঘটনার সত্যতা না পেলে তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

সারিয়াকান্দি থানা অফিসার ইনচার্জ আল আমিন জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা স্বিকার করেছে জামাই রিবুনকে সায়েস্তা করতে ছেলে ধরার গুজব ছড়ানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ৩ জনকে বুধবার সকালে মো আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। 

মন্তব্য