| প্রচ্ছদ

সিনেমা নয় বাস্তব, মাথায় আঘাত পেয়ে নায়িকার স্মৃতি উধাও

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ৭১ বার। প্রকাশ: ২৫ জুলাই ২০১৯ ।

শেষ ছবি ‘ভারত’ সফল হওয়ার পর দিশা পাটানিকে নিয়ে বেশ আলোচনা হচ্ছে। সম্প্রতি এই নায়িকা জানান, তিনি ভুলে গেছেন জীবনের ছয় মাসের স্মৃতি। এ যেন সিনেমার কাহিনি!

একটি দুর্ঘটনার ফলেই স্মৃতিভ্রংশের শিকার হন দিশা। উঁচু জায়গা থেকে পড়ে মাথায় আঘাত লাগার কারণেই ঘটেছিল এমনটা। তারপরও মার্শাল আর্ট ও জিমনাস্টিকসের প্রতি আকর্ষণ কমেনি একটুও।

মিড ডে’র এক প্রতিবেদনে দিশার দুর্ঘটনায় স্মৃতিভ্রংশের বিষয়টি তুলে ধরা হয়। সেখানে লেখা হয়, অভিনেত্রী কংক্রিট ফ্লোরে প্র্যাকটিস করতে গিয়ে পড়ে যান। মাথার আঘাত এতটাই গুরুতর ছিল যে দিশা ওই ঘটনার ফলে ছয় মাসের স্মৃতি হারিয়ে ফেলেন। কিন্তু ঘটনাটি ঠিক কোন সময়ের তা উল্লেখ করা হয়নি।

দিশা বলেন, “আমার জীবন থেকে ছয় মাস হারিয়ে গেছে। কারণ আমার কিছু মনে নেই।”

অ্যাকশন ও স্টান্টের প্রতি দিশার দারুণ আকর্ষণ। বন্ধু টাইগার শ্রফের মতোই নিজের স্টান্ট নিজেই করেন। কিছুদিন আগে আহত হন সালমান খানের ‘ভারত’ ছবির শুটিংয়ের সময়। ওই ছবিতে দিশা সার্কাস জিমন্যাস্টের ভূমিকায় অভিনয় করেন।

সংবাদমাধ্যমকে দিশা বলেন, “আমি তিন বছর আগে জিমনাস্টিকস শিখতে শুরু করেছি। যতটা ছোট বয়স থেকে জিমনাস্টিকস শেখা যায়, ততই ভালো, বিশেষ করে ২০ বছরের আগে শিখলেই ভালো। আমি অল্টারনেট ডে-তে এমএমএ আর জিমনাস্টিকস প্র্যাকটিস করি। প্র্যাকটিস প্রতিদিনই করতে হবে। শরীরের হাড়গোড় একটু না ভাঙলে কোথাও পৌঁছানো যায় না।”

চলতি বছর দিশার আরও কোনো ছবি মুক্তি পাচ্ছে না। ২০২০ সালে বড়পর্দায় আসবেন ‘মালাং’ নিয়ে। মোহিত সুরীর এই সিনেমায় আরও আছেন আদিত্য রায় কাপুর, অনিল কাপুর ও কুনাল খেমু।

মন্তব্য