| প্রচ্ছদ

ইসরাইল থেকে সৌদির গ্যাস কেনার তথ্য ফাঁস!

পুণ্ড্রকথা ডেস্ক
পঠিত হয়েছে ২৪ বার। প্রকাশ: ০১ অগাস্ট ২০১৯ ।

প্রাকৃতিক গ্যাস কেনার বিষয়ে ইহুদিবাদী ইসরাইলের সঙ্গে মতবিনিময় শুরু করেছে সৌদি আরব।

বৃহস্পতিবার ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর মন্ত্রিসভার সাবেক যোগাযোগমন্ত্রীর বরাতে মার্কিন সংবাদমাধ্যম ব্লুমবার্গ এ খবর জানিয়েছে।

আল জাজিরা আরবি জানায়, ইসরাইলের সাবেক যোগাযোগমন্ত্রী আইয়ুব কারা জানিয়েছেন, ইসরাইলি শহর ইলাতের সঙ্গে সৌদি আরবের সংযুক্ত পাইপলাইন নির্মাণের বিষয়ে দুই দেশ আলোচনা করেছে।

এ প্রকল্পের মাধ্যমে সৌদি আরব ইউরোপে তেল রফতানি করবে।

ইসরাইলের সঙ্গে সৌদি আরবের সম্পর্ক স্বাভাবিক করার প্রক্রিয়া জোরদারের পর এ উদ্যোগ নেয়া হয়েছে বলে জানান তিনি।

গ্যাস পাইপলাইন প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে ইসরাইলের সাবেক এ যোগাযোগমন্ত্রী বলেন, এটি হলো দ্বিপক্ষীয় স্বার্থ।

 

পারস্য উপসাগরে ইসরাইলের একটি গ্যাস পাম্প

পারস্য উপসাগরে ইসরাইলের একটি গ্যাস পাম্প

ব্লুমবার্গ জানায়, এ ধরনের একটি শক্তিশালী প্রকল্পের জন্য সৌদি আরব এবং ইসরাইলের মধ্যে আনুষ্ঠানিক কূটনৈতিক সম্পর্ক প্রয়োজন। তবে সরাসরি এমন ঘোষণা এলে এই অঞ্চলটিতে বিরূপ রাজনৈতিক প্রতিক্রিয়া দেখা দেবে।

কারণ ইসরাইলের অবরোধের কবলে থাকা পশ্চিম তীর ও গাজায় ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে উগ্র আচরণের কারণে ইসরাইল আরব বিশ্বে এখনও অনেক বেশি ঘৃণিত অবস্থানে রয়েছে।

এদিকে ইরানকে দমাতে ইসরাইল ও সৌদি আরবের মধ্যে একটি গোপন জোটের অস্তিত্বের কথা উল্লেখ করা হয়েছে ব্লুমবার্গের ওই রিপোর্টটিতে। তবে এই জাতীয় জোটের মাধ্যমে সফলতা অর্জন করা কঠিন হতে পারে বলেও জানিয়েছে মার্কিন সংবাদ সংস্থাটি।

নেতানিয়াহু মন্ত্রিসভার সাবেক মন্ত্রী আইয়ুব কারাও এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন।

তিনি বলেন, সৌদি আরব ও তার আঞ্চলিক মিত্ররা এখন ফিলিস্তিনি ইস্যুতে শুধু মৌখিক সমর্থন দিয়ে যাবে এবং ভেতরে ভেতরে তারা ইসরাইলের সঙ্গে সামরিক ও অর্থনৈতিক সম্পর্ক প্রতিষ্ঠা করবে। কারণ এ সব দেশ তাদের দেশের নিরাপত্তা ও ভবিষ্যৎ নিয়েই এখন চিন্তা করছে।

মন্তব্য